• ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    লিটন পারলেও নাঈম পারেননি

    ইস্ট জোনের হয়ে দ্বিতীয় দিনেই লিটন দাশ পেয়ে গিয়েছিলেন ডাবল সেঞ্চুরি। আর নর্থ জোনের নাঈম ইসলাম অপরাজিত ছিলেন ১৭৫ রান। শেষ পর্যন্ত ১৫ রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি আর পাওয়া হলো না, আউট হয়ে গেছেন ১৮৫ রানে। তবে তার আগে খেলে ফেলেছেন ৪৭৫ বল, ওভারে হিসেবে প্রায় ৮০র কাছাকাছি ! এর মধ্যে ক্রিজে কাটিয়ে দিয়েছেন ৬১৫ মিনিট, প্রায় ১০ ঘন্টারও বেশি। খুব সম্ভবত প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে দীর্ঘতম ইনিংসের একটিও খেলে ফেলেছেন এই ব্যাটসম্যান।

    বিসিএলের তৃতীয় দিন শেষে শেষ পর্যন্ত ৪৯২ রানে ৯ উইকেট তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছে নাঈমের দল নর্থ জোন। আবদুর রাজ্জাক পেয়েছেন ৫ উইকেট, তবে সেজন্য তাঁকে ৬২.৩ ওভার বল করে খরচ করতে হয়েছে ১৮৫ রান।

      ব্যাট করতে নেমে নর্থ জোনের জবাবটা ভালোই দিচ্ছে সাউথ জোন। প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট হারিয়ে তারাও তুলে ফেলেছে ২৯৪ রান, ওপেনার ফজলে মাহমুদ অপরাজিত ছিলেন ৪২১ রানে।

    অন্য ম্যাচে অবশ্য লিটনের ইস্ট জোন জয় পেয়ে গেছে তৃতীয় দিনেই। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ১৯৮ রানেই অলআউট হয়ে গেছে সেন্ট্রাল জোন। আবুল হাসান নিয়েছেন তিন উইকেট, দুইটি করে উইকেট পেয়েছেন এবাদত হোসেন ও আবু জায়েদ। ৫৬ রানের লক্ষ্যটা মাত্র ১ উইকেট হারিয়েই টপকে গেছে ইস্ট জোন। ২১৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংসে জন্য ম্যাচসেরা হয়েছেন লিটন দাশ।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন