• মেয়েদের ক্রিকেট
  • " />
    X

     

    দুই হাতে বল করে শায়লার চমক

    দিনটা বাংলাদেশের জন্য একদমই ভালো যায়নি। ২০১৭ বিশ্বকাপ বাছাইয়ে পাপুয়া নিউগিনিকে হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচেই হেরে গেছে পাকিস্তানের সঙ্গে। সুপার সিক্সে ওঠার আশাও বড় একটা ধাক্কা খেয়েছে। তবে এর মধ্যেই আলোচনায় ছিলেন শায়লা শারমিন। বাম-ডান, দুই হাতেই বল করে চমকে দিয়েছেন সবাইকে।

     

     

    বাংলাদেশের হয়ে এটাই অবশ্য শায়লার প্রথম ম্যাচ নয়, এর আগেও পাঁচটি ওয়ানডে খেলেছেন। তবে বড় মঞ্চে এই প্রথম দুই হাতে বল করলেন। ২৯তম ওভারে প্রথম বল করতে এসেছিলেন। বাঁ হাতি স্পিনে করা প্রথম বলটাই চার মারেন পাকিস্তানের নাইন আবিদি। এক বল পর আবিদি সিঙ্গেল নিলেন, ক্রিজে এলেন বাঁহাতি ব্যাটার বিসমা। এবার শায়লা অ্যাকশন বদলে হয়ে গেলেন ডান হাতি স্পিনার। একই ওভারে দুই শায়লাকে দেখতে পেল সবাই। অবশ্য খুব একটা সাফল্য পাননি, ৩ ওভারে দিয়েছেন ১৮ রান। কোনো উইকেটও পাননি।

    তবে শায়লার এই “কীর্তি” নিয়ে সেখানে পড়ে গেছে হইচই। ক্রিকেট লেখক ডেভিড টাউনসেন্ড টুইট করেছেন। পরে ইংল্যান্ডের সাবেক মহিলা ক্রিকেটার ইবোনি ব্রেন্ট লিখেছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এরকম কিছু কখনো দেখেননি। সাংবাদিক অন্বেষা ঘোষকে আবার মুগ্ধ করেছে শায়লার ফিল্ডিংও। জাহানারার বলে আয়মান আনোয়ারের দারুণ একটা এক হাতে নিয়েছেন শায়লা।

    তবে এসব কিছু হয়তো শায়লাকে একদমই ছুঁয়ে যাচ্ছে না। ম্যাচটাই যে ৬৭ রানে হেরে গেছে বাংলাদেশের মেয়েরা।