• ক্রিকেট

'৯২ বিশ্বকাপের সঙ্গে তুলনা করলেন ওয়াসিম

পোস্টটি ৮১৪৩ বার পঠিত হয়েছে

ম্যাচ শেষ, পাকিস্তান জিতে গেছে। শুধু ট্রফিটা হাতে নেওয়ার পালা। পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদকে সাবেক ইংলিশ ব্যাটসম্যান নাসের হুসেইন সরাসরি জানতে চাইলেন, ভারতের কাছে প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের পর কি এমন কিছু ভেবেছিলেন? সরফরাজ অকপটেই স্বীকার করলেন, তখন এই বিজয়মঞ্চে আসার কথা কল্পনা করেননি। যেমন ১৯৯২ বিশ্বকাপে ভাবেননি ওয়াসিম-ইমরান খানরাও। এই জয়টাই তাই ওয়াসিমরা তুলনা করছেন বিশ্বকাপ বিজয়ের সাথেই। 


১৯৯২ বিশ্বকাপেও সেমিফাইনালে ওঠাটাই ছিল পাকিস্তানের কাছে বিস্ময়। গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ডের কাছে ৭৪ রানে হেরে আরেকটু হলেই বাদ পড়ত গ্রুপ পর্ব থেকে। কিন্তু বৃষ্টিতে ম্যাচ ভেসে যাওয়ায় এক পয়েন্ট পাওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার সাহায্য নিয়ে পৌঁছে যায় সেমিফাইনালে। বাকি গল্পটা তো সবার জানাই।

২৫ বছর পর আবারও একটি বৈশ্বিক ওয়ানডে টুর্নামেন্ট জিতল পাকিস্তান। টুর্নামেন্টে এসেছিল আট নম্বর দল হিসেবে, ভারতের কাছে প্রথম ম্যাচ হারের পর তাদের হিসেবেই বাইরে রেখেছিলেন অনেকে। শেষ পর্যন্ত ফাইনালে সেই ভারতকে গুড়িয়ে দেওয়ার পর টুইটারে ওয়াসিম লিখেছেন, 'ওয়াও! ওয়াও! ওয়াও! অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স। মনে হচ্ছে ১৯৯২ বিশ্বকাপটাই যেন আরেক বার জিতে গেছি। আমি এখন আনন্দের সাগরে ভাসছি।'


সেবার পাকিস্তানের জয়ের নায়ক ইমরান খানও টুইট করেছেন এই ম্যাচ নিয়ে, 'ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জেতার জন্য পাকিস্তানকে অভিনন্দন। আর ফখর তো একেবারে দুর্দান্ত একটা প্রতিভা। ' কদিন আগেই অবসর নেওয়া মিসবাহ উল হকও তাঁর উচ্ছ্বাস জানিয়েছেন, 'ছেলেরা যা করেছে তাতে আমি গর্বিত। '


সরফরাজদের অভিনন্দন জানিয়েছেন ভারতের সাবেকরাও। বীরেন্দর শেওয়াগ বলেছেন, জয়টা পাকিস্তানেরই প্রাপ্য ছিল। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ বলেছেন, পাকিস্তান চ্যাম্পিয়নের মতো খেলেই জিতেছে। অভিনন্দন জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ, শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসসহ আরও অনেকে।