• পাকিস্তান-শ্রীলংকা সিরিজ
  • " />

     

    শ্রীলংকার ক্রিকেটাররাও এখন পাকিস্তানে যেতে রাজি

     

    পাকিস্তান সফরে যাওয়া নিয়ে নিজেদের আপত্তির কথা বোর্ডকে জানিয়েছিলেন শ্রীলংকার ৪০ জন ক্রিকেটার। এমনকি লাহোরের টি-টোয়েন্টি ম্যাচ থেকে নিজেকে সরিয়েও নিয়েছিলেন অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা। তবে এসবের পড়েও পাকিস্তানে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অটল ছিল লংকান বোর্ড। এবার জানা গেলো, আপত্তি জানানো ৪০ জন ক্রিকেটারের মাঝে ১৫ জন পাকিস্তানে খেলার ব্যাপারে রাজি হয়েছেন।

    শ্রীলংকার ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সুমাথিপালা জানিয়েছিলেন, যতকিছুই হোক পাকিস্তানে সেরা দলই পাঠাবেন তারা। বোর্ডের উচ্চপদস্থ এক কর্মকর্তা ক্রিকবাজকে জানিয়েছেন, অনেক ক্রিকেটারই নিজেদের মন বদলাচ্ছেন, “আমাদের পরিকল্পনায় যে ২২ জন ক্রিকেটার আছেন, তাদের মাঝে ১৫ জনই মোটামুটিভাবে রাজি আছেন পাকিস্তান সফরের ব্যাপারে। আমরা তৃতীয় ওয়ানডের আগে তাদের ওপর বেশি জোর দিতে চাইছি না। খেলাটা শেষ হোক, এরপর আমরা বুঝতে পারব আসলেই কারা যাচ্ছেন। সেভাবেই ১৫ জনের দল ঘোষণা করা হবে।”

    এদিকে থারাঙ্গার অনুপস্থিতিতে অধিনায়ক হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে ছিলেন কুশল পেরেরা। তবে কলম্বোতে ফিটনেস টেস্টে উতরাতে পারেননি তিনি। লাসিথ মালিঙ্গারও পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচে খেলা নিশ্চিত নয়।

    জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের পাশাপাশি শ্রীলংকা ‘এ’ দলের দাসুন শানাকা, শন জয়াসুরিয়া ও ওয়ানিন্দু হাসারঙ্গাও পাকিস্তান সফরে যাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত কোন ১৫ জন ক্রিকেটার লাহোরে যাচ্ছে সেটা জানা যাবে দ্রুতই। গতকালই এই সিরিজের জন্য ১৬ জনের দল ঘোষণা করেছে পাকিস্তান।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন