• ফুটবল

নেশনস লিগ সম্পর্কে যা যা জানা দরকার

প্রীতি ম্যাচ নয়, আন্তর্জাতিক বিরতিতে এবার ইউরোপে হবে জমজমাট এক টুর্নামেন্ট। লিগ ফুবটলের মাঝের এই সময়টায় তাই আগের মতো ঝিমিয়ে পড়তে হবে না ফুটবল সমর্থকদের। ইউয়েফার নতুন এই টুর্নামেন্ট সম্পর্কে যা যা জানা দরকার... 


ইউয়েফা নেশনস লিগ কী? 

আন্তর্জাতিক ফুটবলে প্রীতি ম্যাচের কদর কমেছে, এই অনুধাবন থেকেই আসলে নতুন এই টুর্নামেন্টের উদ্ভব। প্রীতি ম্যাচের প্রস্তুতি প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে দলগুলোকে সাহায্য করতে পারছে অল্পই, এমনটাও ভাবছেন অনেকেই। মূলত একারণেই নতুন টুর্নামেন্টের সংযোজন হচ্ছে ইউরোপিয়ান ফুটবলে। ইউয়েফার অন্তর্ভুক্ত ৫৫ দেশকে নিয়েই চালু হতে যাচ্ছে নতুন ফুটবল টুর্নামেন্ট।

৫৫ দল ৪ টি আলাদা লিগে ভাগ হয়ে খেলবে। লিগ 'এ' ও 'বি' তে আছে ১২ টি করে দল। যারা চারটি গ্রুপে বিভক্ত। 'সি' তে ১৫ টি ও 'ডি' তে খেলবে ১৬টি দেশ। হোম আর অ্যাওয়ে ভিত্তিতে একই গ্রুপে থাকা দল খেলবে একে অপরের বিরুদ্ধে। লিগের মতো আছে উত্তোরণ ও অবনমন পদ্ধতিও।

লিগ 'এ' তে থাকবে ইউরোপিয়ান র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষ ১২ দল। এই র‍্যাংকিং অবশ্য ফিফার মতো নয়। শুধুমাত্র প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে দলগুলোর হার/জিতের ওপর পয়েন্টের হিসেবে করা ইউয়েফার আলাদা র‍্যাংকিং। লিগ 'এ' তে শীর্ষে থাকা দলগুলো শীর্ষ বাছাই হিসেবে যোগ দেবে ইউরো ২০২০ বাছাইপর্বের ড্রতে। আর তলানিতে থাকা দলগুলোর অবনমন হবে লিগ 'বি'তে। তাঁদের জায়গায় আসবে লিগ 'বি' এর চার গ্রুপে থাকা শীর্ষ দল। লিগ 'সি', 'ডি' তেও থাকবে একই নিয়ম। প্রথম আসরের সময় নির্ধারণ হলেও, পরের আসরে দিনক্ষণ অবশ্য এখনও নিশ্চিত করেনি ইউয়েফা। 

নতুন এই টুর্নামেন্টের জন্য অবশ্য প্রীতি ম্যাচ একেবারেই নিশ্চিহ্ন হয়ে যাচ্ছে না ইউরোপ থেকে। বছরের দ্বিতীয় অর্ধে ৬ টি করে ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে প্রায় সবগুলো ইউরোপিয়ান দেশগুলোরই। এই ছয় ম্যাচের ভেতর চারটিই হবে ইউয়েফা নেশনস কাপের, বাকি দুটি প্রীতি ম্যাচ। তবে, আগামী বছর ইউরো বাছাই শুরু হওয়ায়, প্রীতি ম্যাচ থাকছে না ইউরোপিয়ান দলগুলোর। 
 
লিগ 'এ'র শীর্ষ বাছাই চার গ্রুপের চার দলকে নিয়ে আগামী বছর জুনে নক-আউট ভিত্তিতে নির্ধারিত হবে ইউয়েফা নেশনস লিগের চ্যাম্পিয়ন। থাকবে তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচও।

লিগ এ:

গ্রুপ ১: নেদারল্যান্ডস, ফ্রান্স, জার্মানি    
গ্রুপ ২: আইসল্যান্ড, সুইজারল্যান্ড, বেলজিয়াম 
গ্রুপ ৩: পোল্যান্ড, ইতালি, পর্তুগাল 
গ্রুপ ৪: স্পেন, ইংল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া 

লিগ বি: 
 
গ্রুপ ১: চেক প্রজাতন্ত্র, ইউক্রেন, স্লোভাকিয়া 
গ্রুপ ২: তুরস্ক, রাশিয়া, সুইডেন  
গ্রুপ ৩: উত্তর আয়ারল্যান্ড, বসনিয়া হার্জেগোভিনা, অস্ট্রেয়া
গ্রুপ ৪:  ডেনমার্ক, আয়ারল্যান্ড, ওয়েলস

লিগ সি: 

গ্রুপ ১: ইসরাইল, আলবেনিয়া, স্কটল্যান্ড  
গ্রুপ ২: এস্তোনিয়া, গ্রিস, ফিনল্যান্ড, হাঙ্গেরি 
গ্রুপ ৩: সাইপ্রাস, বুলগেরিয়া, নরওয়ে, স্লোভেনিয়া  
গ্রুপ ৪: লিথুনিয়া, মন্টেনেগ্রো, সার্বিয়া, রোমানিয়া 

লিগ ডি:

গ্রুপ ১: অ্যান্ডোরা, কাজাখাস্তান, লাটভিয়া, জর্জিয়া 
গ্রুপ ২: সান মারিনও, মলদোভা, লুক্সেমবার্গ, বেলারুশ 
গ্রুপ ৩: কসভো, মাল্টা, আজারবাইজান, ফারও আয়ারল্যান্ড
গ্রুপ ৪: জিব্রাল্টার, লিখটেনস্টাইন, মেসিডোনিয়া