• ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ড সিরিজ
  • " />

     

    • ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ড সিরিজ

    উড-মঈনে ইংল্যান্ডের দিন

    স্কোর

    দ্বিতীয় দিন শেষে

    ইংল্যান্ড ২৭৭ ও ১৯/০ ( বার্নস ১০*, জেনিংস ৮*)

    ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪৭.২ ওভারে ১৫৪ ( ক্যাম্পবেল ৪১, ডাওরিচ ৩৮; উড ৫/৪১, মঈন ৪/৩৬)

    ইংল্যান্ড ১৪২ রানে এগিয়ে

    প্রথম দিনে পড়েছিল মাত্র চার উইকেট, দ্বিতীয় দিনে পড়ল ১৬ উইকেট! সেন্টি লুসিয়ায় প্রথম দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রতিরোধ গড়েছিলেন বেন স্টোকস-জস বাটলার। দ্বিতীয় দিনে কিমার রোচের বোলিং তোপে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও বল হাতে মার্ক উড ও মঈন আলির দুর্দান্ত পারফরম্যান্সেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে নিয়েছে ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় দিন শেষে ক্যারিবিয়ানদের চেয়ে ১৪২ রানে এগিয়ে আছে জো রুটের দল।

    দ্বিতীয় দিনে মাত্র ১৮ ওভার ব্যাট করতে পেরেছে ইংল্যান্ড। দিনের তৃতীয় ওভারেই ফেরেন বাটলার। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের বলে বোল্ড হন তিনি, ফেরার আগে করেছেন ৬৭ রান। চোখ ধাঁধানো কিছু শট খেলে সেঞ্চুরির আশা জাগিয়েছিলেন স্টোকস। কিন্তু সেঞ্চুরিটা পাওয়া হয়নি, আগের দিন ভাগ্য সহায় হলেও এবার রোচের বাউন্সারে ডাওরিচের দারুণ ক্যাচে আউট হন তিনি। স্টোকসের ৭৯ রানই সিরিজে ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ স্কোর।

    ইংল্যান্ডের শেষ চার উইকেট পড়েছে ২১ রানের ব্যবধানে, তাদের প্রথম ইনিংস থামে ২৭৭ রানে। শেষ চার উইকেটের তিনটিই নিয়েছেন রোচ, সব মিলিয়ে এই ইনিংসে চার উইকেট নিয়েছেন তিনি।

    ব্যাটিংয়ে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটা ভালোই হয়েছিল। ক্রেইগ ব্রাথওয়েট ও জন ক্যাম্পবেলের ৫৭ রানের জুটি চিন্তার কারণ হয়ে উঠছিল ইংল্যান্ডের জন্য। ১৯ তম ওভারে ব্রাথওয়েটকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন মঈন। ক্রিজ ছেড়ে তাকে মারতে গিয়ে লং অনে অ্যান্ডারসনের হাতে ক্যাচ দেন ১২ রান করা ব্রাথওয়েট। ঠিক পরের বলেই ক্যাম্পবেলকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন মঈন।

    এরপরই শুরু উড ম্যাজিকের। নিজের তিন ওভারের মাঝেই ফেরান ওয়েস্ট ইন্ডিজের মিডল অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানকে। শাই হোপ, রস্টন চেজ, শিমরন হেটমায়ার ও ড্যারেন ব্রাভো; দুই অংক ছুঁতে পারেননি কেউই। ৭৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ তখন ১০০ রানের নিচের গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায়।

    ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১০০ পেরিয়েছে ডাওরিচ ও রোচের কৃতিত্বে। উড-মঈনদের ওপর চড়াও হয়ে রান তুলেছেন ডাওরিচ। ছয়টি চার মেরে ৫৬ বলে করেছেন ৩৮ রান, রোচের রান ১৬। স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ডাওরিচ ফিরলে উইন্ডিজের ২০০ রান ছোঁয়ার আশাটাও শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত তাদের ইনিংস থামে ১৫৪ রানে। উড নিয়েছে ৫ উইকেট, মঈনের ঝুলিতে গেছে চারটি।

    দিনের বাকি সময়টা আর বিপদ হতে দেননি দুই ইংলিশ ওপেনার। ১০ ওভার ব্যাটিং করে ইংল্যান্ড তুলেছে ১৯ রান, লিড এখন ১৪২। ম্যাচে ফিরতে হলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলারদের জ্বলে উঠতে হবে প্রথম ইনিংসের মতোই।