• ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ড সিরিজ
  • " />

     

    বিশ্বকাপের আগেই ইংল্যান্ডের হয়ে খেলতে পারেন আর্চার

    ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ দলে জফরা আর্চারকে নেওয়ার ব্যাপারে জোরালো ইঙ্গিত দিয়েছেন কোচ ট্রেভর বেইলিস। এজন্য বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দলে নেওয়া হতে পারে তাকে। বিশ্বকাপের প্রাথমিক স্কোয়াড দেওয়ার শেষ দিন ২৩ এপ্রিল, সেখানে আর্চারকে নেওয়া না হলেও চূড়ান্ত স্কোয়াডে আসতে পারেন তিনি, যে স্কোয়াড দেওয়ার শেষ দিন ২২ মে। 

    বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া আর্চারের ব্রিটিশ পাসপোর্ট আছে, ইসিবির আবাসন নীতিতে পরিবর্তন আসায় সম্প্রতি তিনি ইংল্যান্ডের হয়ে খেলার জন্য যোগ্য হয়েছেন। সাত বছর থেকে এ সময়সীমা নেমে এসেছে তিনে, শেষ এক বছরে ২১০ দিন ইংল্যান্ডের মাটিতে কাটিয়েছেন আর্চার। 

    আর্চারের প্রতি ইংল্যান্ডের নজর মূলত তার পেস ও বৈচিত্রের কারণে। সঙ্গে ব্যাটিংয়েও আছে হিটিং। অবশ্য পঞ্চাশ ওভারের ম্যাচে অভিজ্ঞতাটা সীমিত তার- এখন পর্যন্ত খেলেছেন ১৪টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ। সে কারণেই পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে বাজিয়ে দেখা হতে পারে তাকে বলে জানিয়েছেন বেইলিস, “আমাদের স্কোয়াডটা (প্রাথমিক) ২৩ এপ্রিলের মধ্যে দিতে হবে, তবে এরপর এটা বদলানোর জন্য এক মাস সময় আছে।” 

    “এর আগে পাকিস্তান সিরিজ আছে, সে খেলবে কিনা এ ব্যাপারে আমরা আলোচনা করব। কারণ চূড়ান্ত স্কোয়াড দেওয়ার শেষ দিন আসলে ২২ মে।” 

    পাকিস্তান সিরিজকেই বিশ্বকাপের পোশাকি মহড়া হিসেবে দেখতে চান বেইলিস, “আমরা চূড়ান্ত ১৫ জনের স্কোয়াডটা যত দ্রুত সম্ভব ঠিক করে ফেলতে চাই। তবে (পাকিস্তানের বিপক্ষে) ম্যাচগুলোতে জফরার মতো কাউকে খেলিয়ে সিদ্ধান্তটা নিতে চাই।” 

    এখনকার স্কোয়াডে ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইন-আপ মোটামুটি নির্ধারিত। বোলিং ডিপার্টমেন্টে মার্ক উডও ক্যারিবীয় সফরে নিজের ফিটনেসের জোরালো পরীক্ষা দিয়েছেন। আর্চার তাই জায়গা নিতে পারেন লিয়াম প্লাঙ্কেট বা টম কারানের। প্রথমজনের অভিজ্ঞতা দারুণ হলেও ফিটনেস নিয়ে চিন্তিত ইংল্যান্ড, আর পরের জন ঠিক মেলে ধরতে পারেননি এখনও নিজেকে।