• ক্রিকেট

১০৬ রানের সম্বল নিয়ে রেকর্ড জয় শেখ জামালের

শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ১০৬ অল-আউট, ৩৫.১ ওভার (জিয়াউর ৪১, বিশত ২২, সাব্বির ৪/২৮, শরিফুল ৩/২০, দেলোয়ার ২/১৪)
শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব ৯৪ অল-আউট, ২৯ ওভার (সাব্বির ২৬, কৌল ১৭, জিয়াউর ৫/২৩, শাকিল ৪/২১, শহিদুল ১/৩২)
শেখ জামাল ১২ রানে জয়ী 


জিয়াউর রহমানের ২৩ রানে ৫ ও সালাউদ্দিন শাকিলের ২১ রানে ৪ উইকেটে ১০৬ রানের সম্বল নিয়েও শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবকে হারিয়ে দিয়ে রেকর্ড গড়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। শাইনপুকুর গুটিয়ে গেছে ৯৪ রানেই। বাংলাদেশের ঘরোয়া লিস্ট ‘এ’-তে এর আগে এতো কম রানের সম্বল নিয়ে জেতেনি কোনও দল। এর আগে রেকর্ডটি ছিল ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবের, ২০১৭ সালে প্রিমিয়ার ডিভিশনের রেলিগেশন লিগে ২০ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে ১২০ রান করেও পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে তারা হারিয়েছিল ৩২ রানে। আর বাংলাদেশের মাটিতে লিস্ট ‘এ’-তে রেকর্ডটা ভারতের, ২০১৫ সালে মিরপুরে তারা জিতেছিল ১০৫ রান করেও। 

ফতুল্লায় ৪৬ ওভারে নেমে আসা ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিং নিয়েছিল শাইনপুকুর। ১২ রানের মধ্যেই ফিরেছিলেন শেখ জামালের দুই ওপেনার ফারদিন হাসান ও ইমতিয়াজ আহমেদ। এরপর ভারতীয় পুনিত বিশতের সঙ্গে নাসির হোসেনের জুটি ৩৫ রানের। তবে ৪৭ রানে দাঁড়িয়েই শেখ জামাল হারিয়েছে ৩ উইকেট। প্রথমে শরিফুলের পরপর দুই বলে ফিরেছেন নাসির ও নুরুল হাসান, এক বল পর সোহরাওয়ার্দির শিকার বিশত। 

৬ষ্ঠ উইকেটে তানভীর হায়দারকে নিয়ে জিয়াউর যোগ করেছেন ২৭ রান। জিয়া ছিলেন প্রায় শেষ পর্যন্ত, ৯ম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে করেছেন ৫৮ বলে ২টি করে চার ও ছয়ে ৪১ রান। তানভীর ও জিয়ার পর আরও দুইটি উইকেট নিয়েছেন সাব্বির হোসেন, ২৮ রান খরচ করে। শরিফুল ৩টি নিয়েছেন ২০ রানে, দেলোয়ার হোসেন ২ উইকেট নিয়েছেন ১৪ রানে। 

১০৭ রানের লক্ষ্য, শুরুটা দারুণ হয়েছিল শাইনপুকুরের। ওপেনিং জুটিতেই ভারতীয় উদয় কৌল ও সাব্বির তুলেছিলেন ৪৬ রান। প্রথম আঘাতটা করেছেন জিয়াই, সাব্বিরের উইকেট নিয়ে। এরপর সালাউদ্দিন শাকিল ফিরিয়েছেন কৌলকে। জিয়া ও শাকিল মিলেই এরপর শুরু করেছেন আক্রমণ, ধস নেমেছে শাইনপুকুরের ইনিংসে। শেষ ৯ ব্যাটসম্যানের মধ্যে শুধু সোহরাওয়ার্দি ছুঁয়েছেন দুই অঙ্ক। জিয়া ও শাকিল ছাড়া বাকি এক উইকেট নিয়েছেন শহিদুল ইসলাম। 

 

 

৪৮ রানের ব্যবধানে ১০ উইকেট হারিয়ে বসেছে শাইনপুকুর, শেখ জামালকে রেকর্ড জয়ের সুযোগ করে দিয়ে। এটি শেখ জামালের এবারের লিগে তৃতীয় ম্যাচে এসে প্রথম জয়। আর তিন ম্যাচ খেলে সবকটিতেই হেরেছে শাইনপুকুর।