• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    তাসকিন এখনও ফিট নন, বিশ্বকাপ স্কোয়াডে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়নি : নাজমুল হাসান

    তাসকিন আহমেদকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে নেওয়ার ব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান, তাসকিন এখনও পুরো ফিট হয়ে ওঠেননি, ছন্দও ফিরে পাননি বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে তার কথা আগে থেকেই চিন্তা করে রেখেছে বিসিবি, ‘প্রস্তুত’ হতে পারলেই দলে নেওয়া হতে পারে তাকে। আবার অন্যদিকে আবু জায়েদ রাহীকে কোনও ম্যাচে সুযোগ না দিয়েই বাদ দেওয়া ঠিক হবে না বলে ব্যক্তিগত মত তার। তবে শেষ পর্যন্ত দলে নেওয়া হলেও চোটের সমস্যা না থাকলে একাদশে তাসকিন অথবা রাহীর থাকার সম্ভাবনা বেশ কম বলে জানিয়েছেন তিনি। 

    বিশ্বকাপ স্কোয়াডে চমক হয়েই এসেছিল ওয়ানডে অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা রাহীর নাম। তখনও নির্বাচকরা জানিয়েছিলেন, তাসকিন পুরো ফিট হয়ে ওঠেননি বলেই সুযোগ পাননি তিনি। তবে তার কথা ভাবা হয়েছিল পেস আক্রমণে বৈচিত্র আনতে, নাজমুল বলছেন এমনই, “এটা আগে থেকেই ছিল, তবে সিদ্ধান্ত নেইনি। (পেসার) চারজন আছে- মাশরাফি, মোস্তাফিজ, রুবেল, রাহী। সবার উচ্চতা একই রকম। পেস একই রকম। ধারাবাহিকভাবে একটু জোরে রুবেল করে। রাহীর ক্ষেত্রে আলাদা বৈচিত্র নেই। তাসকিন আসলে একটা ‘ভ্যারিয়েশন’ আসবে। ওর উচ্চতা, পেস। ওর বাউন্সার। টিম ম্যানেজমেন্ট বলছে, ওর বাউন্সার ইয়র্কার লাগবে (দলের প্রয়োজনে), এগুলোতে সে ভাল।”

     

     

    তবে স্কোয়াডে নেওয়া হলেও তার একাদশে থাকার সম্ভাবনা নিয়ে নাজমুল বলেছেন, “ও থাকলে যে দলে খেলবে এমন সম্ভাবনা নেই কিন্তু। মাশরাফি, মোস্তাফিজ খেলছে। সাইফউদ্দিন খেলছে। রুবেল আছে। ওরা না থাকলে না তৃতীয় অপশন চিন্তা করবেন। মূল একাদশে তার সম্ভাবনা দেখি না। মাশরাফি, মোস্তাফিজকে তো বসাব না। সাইফউদ্দিন ভাল করছে, তার সম্ভাবনা বেশি। সে না খেললে রুবেল খেলবে। আপনারা তো রিজার্ভ নিয়ে কথা বলছেন। অসাধারণ কিছু না হলে এখন যা আছে, সেটাই খেলবে। 

    “প্রথমবার তাসকিন তালিকায় ছিল না, কারণ সে ফিট ছিল না। আনফিট ক্রিকেটারের নাম তো দেব না। এখনও রিপোর্ট হচ্ছে- সে ফিট না। ছন্দে আসে নাই। লাইন-লেংথ ঠিক হয় নাই। রাহীকে সুযোগ না দিয়ে আরেকজনকে ঢুকাবো, এটা ঠিক হবে না, এটা আমার ব্যক্তিগত ধারণা।”

    ত্রিদেশীয় সিরিজে এখন পর্যন্ত একটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ, ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়েছে বেশ সহজেই। আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে ম্যাচটা ভেসে গেছে বৃষ্টিতে। দল ফাইনাল নিশ্চিত করলে শেষ ম্যাচে নিয়মিত একাদশের বাইরে কাউকে সুযোগ দেওয়া পক্ষে নাজমুল, তবে তাসকিনকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে নেওয়ার ব্যাপারে কোনও প্রস্তাবনা তার কাছে আসেনি, “ আমার কাছে প্রস্তাবনা আসে নাই। তবে চিন্তা ছিল (তাকে নেওয়ার ব্যাপারে), যেহেতু স্কোয়াড বদলের সুযোগ আছে। সে ফিট হয়, যদি ফিট থাকে এবং ভাল করে বোলিং করতে পারে।  এখন পর্যন্ত দেখিনি, আমরা তো তুলনা করার সুযোগই পাই নাই। রাহী তো খেলেই নাই। এখনও মন্তব্য করার মতো সময় আসেনি।” 

    “যদি নিশ্চিত হই, যে বাকিদের চেয়ে এগিয়ে, সে ফিট, তাহলে আমরা চিন্তা করে দেখব। তবে আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। পরের ম্যাচ যদি আল্লাহর রহমতে জিতে যাই, তাহলে পরের ম্যাচে ঝুঁকি নিতে পারবে।” 

    বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত ১৫ জনের স্কোয়াডের সঙ্গে আয়ারল্যান্ড ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য বাড়তি হিসেবে নেওয়া হয়েছিল নাঈম হাসান ও ইয়াসির রাব্বিকে। পরে যুক্ত করা হয়েছিল তাসকিন ও ফরহাদ রেজাকে।