• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    'রশিদ-নবীদের সামলানোটা সহজ হবে না'

    বাংলাদেশের বিপক্ষে তাদের টপ অর্ডারের ছয়জন ব্যাটসম্যানই আউট হয়েছিলেন স্পিনারদের বলে। আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষেও রশিদ খান-মোহাম্মদ নবীদের স্পিন আক্রমণ সামলাতে হবে কিউইদের। আফগানদের বিপক্ষে ম্যাচের আগে সাংবাদিকদের নিউজিল্যান্ড কোচ গ্যারি স্টেড বলেছেন, রশিদ খানদের ঘূর্ণিজাদু মোকাবেলা করতে পুরোপুরি প্রস্তুত কেন উইলিয়ামসনরা।

    গত ম্যাচে মাশরাফিদের দুই উইকেটে হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড। রান তাড়া করার সময় ৪৭ ওভারের মাঝে ২৮ ওভারই বাংলাদেশের স্পিনারদের সামলাতে হয়েছে কিউই ব্যাটসম্যানদের। রশিদ-নবী-মুজিব স্পিনত্রয়ীও যে আজকের ম্যাচের বেশিরভাগ ওভার করবেন, সেটা বলাই বাহুল্য।

    শ্রীলংকার বিপক্ষে এক ওভারের মাঝে তিন উইকেট নিয়ে একাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন নবী। স্টেড মানছেন, স্পিনই আফগানদের সবচেয়ে বড় শক্তি, ‘স্পিন আক্রমণই তাদের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার। এশিয়ান দেশগুলোর ক্ষেত্রে এমনটাই আমরা আশা করি। অতীতেও আমরা স্পিনে ভালো খেলেছি। তবে গত ম্যাচে চাপের মাঝে ছিল দলের সবাই। ভুল কিছু শট নির্বাচন করার কারণেই স্পিনারদের বিপক্ষে পারফরম্যান্স অমন হয়েছিল।’

     

     

    রশিদ-মুজিবদের নিয়ে ‘হোমওয়ার্কটা’ ভালোভাবেই সেরেছেন উইলিয়ামসনরা, জানালেন স্টেড,‘রশিদ, মুজিব ও নবীকে নিয়ে আমরা ম্যাচের আগে কাজ করেছি। তাদের সামলানোটা সহজ হবে না একদমই। আশা করছি টন্টনের পিচ ভালো হবে। চারদিনের ম্যাচে আগে এখানে স্পিন ধরেছে। কিন্তু বিশ্বকাপের ম্যাচে পিচে অনেক ঘাস থাকবে, তাই গতিও থাকবে আগের চেয়ে বেশি।’

    এদিকে আফগান অধিনায়ক গুলবাদিন নাইব মনে করেন, রশিদকে খেলাই সবচেয়ে বেশি কঠিন হবে কিউই ব্যাটসম্যানদের জন্য, ‘শুধু উইলিয়ামসন না, তাদের দলের সবার জন্য রশিদকে খেলাটা কঠিন হবে। এমনকি আমাদের ব্যাটসম্যানরাও তাঁকে ভালোভাবে সামলাতে পারে না অনুশীলনে। সে অন্যদের চেয়ে একদম আলাদা, অনেক দ্রুতগতিতে বল করে। ব্যাটসম্যান তাই বুঝে ওঠার সময় পায় না। ’