• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    বুমরাহ-পান্ডিয়ার বাউন্সারে সতর্ক থাকার পরামর্শ পন্টিংয়ের

    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে পেসারদের দাপটে তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়েছিল অস্ট্রেলিয়ার টপ অর্ডার। ওশান থমাসদের দুর্দান্ত বাউন্সারে নাকাল অজিরা ক্রিজে থিতু হতে পারছিল না কিছুতেই। অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ রিকি পন্টিং বলছেন, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচেও বুমরাহ-পান্ডিয়াদের বাউন্সার থেকে বেঁচে থাকতে হবে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের।

    ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে আট ওভারের মাঝেই চার উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া, স্কোরবোর্ডে তখন ৫০ রানও ওঠেনি। থমাসের এক বাউন্সার সজোরে উসমান খাওয়াজার হেলমেটে লেগেছিল। প্রাথমিক বিপর্যয় পার করে স্টিভ স্মিথ ও নাথান কোল্টার নাইলের দৃঢ়তায় শেষ পর্যন্ত ২৮৮ রানের স্কোর দাড় করায় অজিরা, ম্যাচ জেতে ১৫ রানে।

    পন্টিংয়ের বিশ্বাস, ওভালে ভারতীয় পেসারদের বাউন্সারও বিপদে ফেলতে পারে ফিঞ্চ-ওয়ার্নারদের, ‘বুমরাহ দুর্দান্ত বোলার। সে নতুন বলে অনেক বৈচিত্র্য আনবে, বাউন্সারও দেবে। পান্ডিয়া, শামিও ব্যাটসম্যানদের বাউন্সারে নাকাল করবে। ভুবনেশ্বরকে নিয়ে খুব একটা চিন্তা নেই, তাঁর গতির বোলারদের বাউন্সার সমস্যা করবে না। ভারত হয়ত স্পিনার হিসেবে শুধু কেদার যাদবকে খেলাবে। বাউন্সার নিয়ে বিশেষভাবে কাজ করব আমরা। আশা করি সেই ম্যাচে খুব একটা সমস্যা হবে না ব্যাটসম্যানদের।’

     

     

    বাউন্সারে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়তে হয়েছে খাওয়াজা ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে। দুইজনই নিজেদের ক্যারিয়ারে বাউন্সারে পুল করতে গিয়ে প্রতিপক্ষকে উইকেট বিলিয়ে দিয়েছেন বহুবারই। এই দুইজনকে বিশেষভাবে বাউন্সার থেকে সতর্ক থাকতে বলছেন পন্টিং, ‘কয়েক সপ্তাহের ব্যবধানে দুইবার খাওয়াজার মাথায় বল লেগেছিল। টপ অর্ডারে নামলে এমনটা হবেই। এটার সাথে মানিয়ে নেওয়ার কৌশল খুঁজে বের করতে হবে। কারণ নতুন বলের এই বাউন্সার খুব বেশি সময় স্থায়ী হবে না। ম্যাক্সওয়েলও খুব একটা স্বস্তিতে থাকে না বাউন্সারের মুখোমুখি হতে। তাঁর পুল, হুকটাও খুব একটা ভালো না। তাদের সাথে এসব ব্যাপার নিয়ে বিশেষভাবে কথা বলব।' 

    আগামীকাল ওভালে মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া-ভারত।