• নিউজিল্যান্ড বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
  • " />

     

    কোহলি-স্মিথ শাস্তি না পাওয়ায় অবাক ডু প্লেসি

    ‘ললিগেট বিতর্কের’ জন্য কম সমালোচিত হননি। গত নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টে ‘বল টেম্পারিংয়ের’ অভিযোগে তখনকার দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিকে অভিযুক্ত করেছিল আইসিসি। কাটা হয়েছিল তাঁর পুরো ম্যাচ ফিও।  নিষেধাজ্ঞার মতো শাস্তি না পেলেও ব্যাপারটি খুব একটা ভালো চোখে দেখেননি। এবার ডু প্লেসি জানিয়েছেন, বেঙ্গালুরুতে কোহলি-স্মিথের কান্ডে কাউকে শাস্তি না দেওয়ায় অবাক তিনি!

     

    সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট চলার সময় রেনশ’ ও অশ্বিনের একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে তর্কে জড়িয়ে পড়েন স্মিথ ও কোহলি। অবস্থা বেগতিক দেখে আম্পায়ার নাইজেল লং তাঁদের থামান। যদিও থেমে থেমে তাঁদের মাঝে তর্ক চলতেই থাকে। এর পরেই ঘটে সেই অপ্রীতিকর ঘটনা। আউট হওয়ার পর ড্রেসিংরুমের দিকে তাকিয়ে সাহায্য নিতে গেলে স্মিথকে বাধা দেন আম্পায়ার ও কোহলি। ম্যাচের পর কোহলি অভিযোগ করেছিলেন, এরকম ঘটনা আগেও ঘটছে। স্মিথও নিজের ওই কান্ডের জন্য ক্ষমা চান।

     

     

    অনেকেই ভেবেছিলেন এসব ঘটনার পর আইসিসি শাস্তিমূলক কোনো ব্যবস্থা নেবে। তবে শেষ পর্যন্ত কিছু হয়নি। আর এতেই অবাক হয়েছেন ডু প্লেসি, “আমি এই ঘটনায় খুব অবাক হয়েছি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে যেই কারণে আমার সাথে অমনটা করা হয়েছিল সেটা এই ঘটনার চেয়ে অনেক ক্ষুদ্র। এজন্যই আমি একটু বেশিই অবাক।”  


    ডু প্লেসি মনে করেন, সবার জন্যই আইসিসির নিয়ম সমান হওয়া উচিত, “আমরা এবং নিউজিল্যান্ড প্রায় একই রকম ক্রিকেট খেলি। প্রতিপক্ষকে মাঠের ভেতরে বাইরে দুই জায়গাতেই সম্মান দেখাই। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া ও ভারত যখন মুখোমুখি হয় তখনই এরকম ঘটনা ঘটে। এবার তো একটু বেশিই হয়েছে। আমি আশা করেছিলাম আমার সাথে যেমন ব্যবহার করা হয়েছিল, এই ক্ষেত্রেও তেমনি হবে! তবে এরকম কিছু হয়নি।  আমি যদি এরকম কিছুর সাথে জড়িত হতাম তাহলে অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যমগুলো কী বলত সেটাই ভাবছি! ”