• স্প্যানিশ সুপার কাপ
  • " />

     

    রোনালদোর আশা ছাড়ছেন না জিদান

    ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর লাল কার্ডের পরেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, সিদ্ধান্তটা তাঁর কাছে বাড়াবাড়ি মনে হয়েছে। বিতর্কিত বিষয়ে এমনিতে নীরব থাকলেও এবার নিজের বিরক্তিটা চেপে রাখতে পারেননি জিনেদিন জিদান। একই সঙ্গে মনে করিয়ে দিয়েছেন, রোনালদোকে পাওয়ার আশা এখনো ছাড়ছেন না।

    বার্সেলোনার সঙ্গে সুপার কাপের প্রথম লেগে লাল কার্ড দেখেছিলেন রোনালদো। তবে সেটার জন্য নয়, বড় শাস্তি পেয়েছেন মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার সময় রেফারিকে ধাক্কা মারার জন্য। সবশুদ্ধ পাঁচ ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন রোনালদো, খেলতে পারবেন না লিগের প্রথম চার ম্যাচেও। সংবাদ সম্মেলনে জিদান বললেন, ব্যাপারটা মেনে নিতে পারছেন না।

    ‘আমি পুরো ব্যাপারটাতেই বিরক্ত। রেফারি কী চিন্তা করছিলেন সেটা আমি এখনো বুঝে উঠতে পারছি না। তবে আপনি যদি ব্যাপারটা ফিরে দেখেন, দিন শেষে রোনালদোকে আমরা পাঁচ ম্যাচের জন্য পাব না। আমি জানি রেফারির কাজটা কঠিন, ভুল যে কেউই-ই করতে পারে। কিন্তু সবকিছুর পরেও পাঁচ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞাটা অনেক বড়। আমাদের এটা নিয়ে বিরক্ত হওয়া স্বাভাবিক।’

    মাদ্রিদের আট বছরে এ নিয়ে ষষ্ঠ লাল কার্ড দেখলেন রোনালদো। মাদ্রিদ প্রতিবারই এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আবেদন করেছে। জিদান এবারও সেরকম আভাস দিলেন, ‘কমিটি কাল এটা নিয়ে বসবে, এরপর আমরা দেখব আমরা কী করতে পারি।’ রোনালদোকে পাওয়ার আশা ছাড়ছেন না, সেটিও জানিয়ে দিলেন, ‘আমি জানি না কী হবে। আশা করছি ওকে পাব। পাঁচ ম্যাচ শাস্তি তো ওর প্রাপ্য। রোনালদো খেলতে চায়, সব কিছু মিলে ও বেশ হতাশ।’

    প্রথম লেগে ৩-১ গোলে জয়ের পর বার্নাব্যুতে রিয়ালের একটু নির্ভারই থাকার কথা। তবে জিদান পা মাটিতে রাখছেন, ‘বার্সেলোনা যে কোনো সময়েই ঘুরে দাঁড়াতে পারে। সেই সামর্থ্য ওদের আছে। আমাদের মনযোগটা কোনোভাবেই বিচ্যুত হওয়া যাবে না।’

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন