• ফুটবল

উৎসব,পতন,বিবর্তন,উত্থানঃ যেভাবে ফুটবলে এলো 'কোপা আমেরিকা'!

পোস্টটি ৭২১ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।

সে অনেক অনেক আগের কথা। সময়ের হিসেবে বিশ শতকের শুরুতে, সংখ্যায় সংখ্যায় সেটা হবে ১৯১৬! ঠিক এক শতাব্দী আগে ১৮১৬ সালে স্বাধীনতা পাওয়া আর্জেন্টিনা নিজেদের স্বাধীনতার শতবর্ষ পালনে ঠিক করল একটা ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করবে। ফুটবলের দেশ হিসেবে সেটা অবশ্য স্বাভাবিকভাবেই অনুমেয়। ঠিক তাই, ১৯১৬ সালের ২ রা জুলাই আর্জেন্টিনাতে বসল এক জাঁকজমকপূর্ণ ফুটবলের আসর। আর্জেন্টিনার আমন্ত্রণ রক্ষায় সে টুর্নামেন্টে যোগ দিতে আর্জেন্টিনায় হাজির হয়ে গেল চিলি, উরুগুয়ে আর আর্জেন্টাইন ফুটবলের সবচাইতে এখনকার সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দী ব্রাজিল! 

১৯১৬ সালের সেই টুর্নামেন্টটার নাম ছিল "কমপিওনাতো সুদামেরিকানো অফ সেলেসিওনিস", ইংরেজিতে যেটার মানে দাঁড়ায় সাউথ আমেরিকান চ্যাম্পিয়নশিপ অফ নেশন্স! মূলত এই আসরটিকেই ধরা হয় এখন যে কোপা আমেরিকা আয়োজন করা হয় সেটার প্রথম আসর। তবে মজার ব্যাপার হল, এখন যে কোপা আমেরিকা আয়োজিত হয়, সেটার আয়োজক কনমেবল তখন অব্দি প্রতিষ্ঠিতই হয়নি। কাগজে কলমে কনমেবলের প্রতিষ্ঠা তারিখ উল্লেখ করা আছে ৯ জুলাই, ১৯১৬ আর কনমেবলের টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকার প্রথম আসর কিনা অনুষ্ঠিত হয়েছে ১৯১৬ সালের ২রা জুলাই, কনমেবল গঠিত হওয়ারও ৭ দিন আগে! 

আসলে, কনমেবল গঠন করার কিংবা দক্ষিণ আমেরিকানদের জন্যে আলাদা একটা টুর্নামেন্ট আয়োজন করার চিন্তাভাবনা এই সাউথ আমেরিকান চ্যাম্পিয়নশিপ আয়োজনের শুরুতেই দক্ষিণ আমেরিকান দেশগুলির ফুটবলের কর্তাব্যাক্তিদের মাথাতেই ছিল না। সেটা মাথায় আসে প্রথম এক উরুগুইয়ানের, নাম তাঁর হেক্টর গোমেজ রিভাদাভিয়া। 

আর্জেন্টিনার স্বাধীনতার শতবর্ষ উপলক্ষ্যে আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টটি তখন প্রথম কদিনেই দক্ষিণ আমেরিকায় বিপুল সাড়া ফেলে দিয়েছে। আর ঠিক তখনই নিজেদের নিয়ে আরেকটি ফুটবল সংস্থা খোলার চিন্তা মাথায় আসে উরুগুইয়ান হেক্টর গোমেজ রিভাদাভিয়ার। তিনিই প্রথম বাকি সব দেশের কাছে প্রস্তাব দেন- আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, চিলি আর উরুগুয়েকে নিয়ে একটা ফুটবল সংস্থা খুলে ফেললে কেমন হয়? 

আঞ্চলিক ফুটবল সংস্থা গঠনের এই প্রস্তাব এই ২০২১ সালে বসে বেশ স্বাভাবিক শোনালেও সেই ১৯১৬ সালে কিন্তু ব্যাপারটা এমন ছিল না। তখন অব্দি যে ফিফা ছাড়া আর কোন ফুটবল সংস্থাই ছিল না। এখন মহাদেশভিত্তিক ফুটবল সংস্থা হিসেবে দাপট দেখানো উয়েফা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৫৪ সাল নাগাদ,   এশিয়াতে ফুটবলের দেখভাল করে যে এএফসি সেটার প্রতিষ্ঠা সালও ১৯৫৪, কনমেবলের এক রকম 'খালাত ভাই' উত্তর আমেরিকার ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংখ্যা কনকাকাফ প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৬১ সালে, ওশেনিয়ার ফুটবল সংস্থা ওএফসির ক্ষেত্রে সেটা ১৯৬৬! 

তাহলেই ভাবুন, ১৯১৬ সালে আঞ্চলিক ফুটবল নিয়ন্ত্রক একটা সংস্থা গঠনের প্রস্তাব কতটা সুদূরপ্রসারী চিন্তা হতে পারে, আর সেই সাথে কিছুটা অস্বাভাবিকও বটে! তবে যেটাই হোক, হেক্টর গোমেজের এই প্রস্তাবকে বাকি দেশগুলি গ্রহণ করে ফেলল। ১৯১৬ সালের ৯ই জুলাই-ই প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেল কনফেডারেসিওন সুদামেরিকানা দি ফুটবল  কিংবা, সাউথ আমেরিকান কনফেডারেশন অফ সকার- কনমেবল! অবশ্য এমন দুর্দান্ত চিন্তার জন্যে হেক্টর গোমেজকে সম্মানিতও করা হয়, কনমেবলের প্রথম প্রেসিডেন্ট হন এই হেক্টর গোমেজই। মোটামুটি ১৯২৬ সাল নাগাদ হেক্টর গোমেজই কনমেবলের বড় কর্তার দায়িত্বে ছিলেন। 

তবে কনমেবল প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেলেও তখনই কিন্তু এই টুর্নামেন্টটির নাম কোপা আমেরিকা ছিল না। এমনকি কনমেবল আয়োজিত এই টুর্নামেন্টের সব আসর তখন 'অফিশিয়াল' ও ছিল না। ১৯৪৫ সাল নাগাদ দক্ষিণ আমেরিকার এই ফুটবল টুর্নামেন্টটি যে নিয়মিত বার্ষিকীতে আয়োজিত হয়েছে এমনটাও কিন্তু নয়। তখন অব্দি দক্ষিণ আমেরিকার এই ফুটবল টুর্নামেন্টটি ছিল অনিয়মিত, এই অনিয়মিত আয়োজনের মধ্যেও বা যে কয়টি আসর বসেছিল তার সবকটিকেই আবার কনমেবল তখন 'অফিশিয়াল' স্বীকৃতি দেয়নি। তবে প্রাচীন এই টুর্নামেন্টটি নতুন যুগে প্রবেশ করে ১৯৪৫ সাল নাগাদ, তখনই কনমেবলের কর্তা ব্যাক্তিদের মাথায় এই টুর্নামেন্টটিকে অফিশিয়ালি নিয়মিত করার একটা চিন্তা মাথায় আসে।  তবে সেই চিন্তাও যে খুব তড়িৎগতিতে ফল লাভ করেছে এমনটাও কিন্তু নয়। তবে কনমেবলের এই চিন্তার মাঝেই ১৯৫৮ সাল নাগাদ উয়েফা নিজেদের টুর্নামেন্ট তখনকার ইউরোপিয়ান কাপ  মাঠে নামিয়ে ফেলল। সেটা কনমেবলকে কোনরকম প্রভাবিত করেছিল কিনা সেটা অবশ্য হলফ করে বলা যায়না, তবে ১৯৭৫ সালে কনমেবলের এই টুর্নামেন্ট সত্যিকারের নবজাগরণ লাভ করে। এখন আমরা যে 'কোপা আমেরিকা' নামটা দেখি, এই নামে প্রথম টুর্নামেন্টটিকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় ঐ ১৯৭৫ সালেই!

তবে কোপা আমেরিকার তখনকার ফরম্যাটটা কিন্তু এখনকার মত ছিল না। সেসময় টুর্নামেন্টটিতে নির্দিষ্ট কোন ভেন্যুই ছিল না। কোপা আমেরিকা তখন খেলা হত পুরো বছরজুড়ে। ১৯৭৫ সালে 'কোপা আমেরিকা' নামে শুরু হওয়ার প্রথম আসরটির বিস্তৃতি ছিল জুলাই ১৭ থেকে অক্টোবর ২৮ অব্দি! তখন  যেটা হত, কনমেবলের ১০টা দেশের মধ্যে যেকোন একটিকে সেমি ফাইনালে অটো প্রমোশন দিয়ে বাকি নয়টি দল নিজেদের মধ্যে তিনটি গ্রুপ করে বছরজুড়ে নিজেদের মধ্যে ম্যাচ খেলত। গ্রুপ স্টেজের ম্যাচ শেষে তিন গ্রুপের তিনটি দল আর অটো প্রমোশন পাওয়া দল মিলে হওয়া চারটি দলের মধ্যে সেমিফাইনাল খেলা শুরু হত। সে হিসেবে ১৯৭৫ সালে উরুগুয়ে, ১৯৭৯ সালে পেরু, ১৯৮৩ সালে প্যারাগুয়ে, ১৯৮৭ সালে আবারও উরুগুয়েকে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে অটো প্রমোশন দেওয়া হয়।

তবে ঐ ১৯৮৭ অব্দিই। কোপা আমেরিকার অদ্ভুতুড়ে ফরম্যাটটা টিকে ছিল এই ১৯৮৭ সালের আসর পর্যন্তই। ১৯৯১ এর আসর থেকে কোপা আমেরিকার ফরম্যাট পাল্টে ফেলে নির্দিষ্ট ভেন্যুতে আসরটি অনুষ্ঠিত হওয়া শুরু করে। এখানে একটা কথা বলে নেওয়া প্রয়োজন, নির্দিষ্ট ভেন্যুতে কোপা আমেরিকা প্রথম অনুষ্ঠিত হয় ১৯৮৭ সালে। সেবার টুর্নামেন্ট মাঠে গড়িয়েছিল আর্জেন্টিনাতে, তবে ঐ অদ্ভুতুড়ে ফরম্যাটেই! 

যা হোক, ১৯৯১ সালে ফিরে আসা যাক। সেবার কোপা আমেরিকাতে অটোপ্রমোশন বাদে একটা নতুন ফরম্যাটে টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ায়। কনমেবলের ১০ দলকে নিয়ে মোট দুটি গ্রুপ করে চিলিতে অনুষ্ঠিত হয় সেই আসরটি। তবে মজার ব্যাপার হল, নতুন এই ফরম্যাটটির স্থায়ীত্বও মোটে ঐ একটা আসরই। ১৯৯৩ সাল থেকে কনমেবলের দশটি দল সহ আরো দুটি দেশকে আমন্ত্রণ জানিয়ে মোট ১২ দল নিয়ে মাঠে গড়াতে থাকে কোপা আমেরিকা। সেই দুটো দল অবশ্য বেশিরভাগ সময়ই কনকাকাফ থেকেই নেওয়া হয়।

তবে দ্রুত বিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যাওয়া এই কোপা আমেরিকা টেলিভিশন সম্প্রচার শুরু করে ১৯৮৭ সাল থেকে। মোটামুটি তখন থেকেই কোপা আমেরিকা দক্ষিণ আমেরিকার বাইরেও একটা আলোড়ন তুলে ফেলে। ইউরোপে ১৯৮৭ সালের আসরটি যথেষ্ট জনপ্রিয়তা তৈরি করতে পেরেছিল। 

আর তখন  থেকে কোপা আমেরিকা এভাবেই চলছে। তবে ২০১৬ সালের আসরে কোপা আমেরিকার ফরম্যাটে আরেকবার বদল আনা হয়, যদিও সেটা ঐ এক আসরের জন্যেই। মূলত কোপা আমেরিকার শতবর্ষ পালনের জন্যে সে আসরে কনকাকাফ থেকে ৬ দল নিয়ে কনমেবলের ১০ দল সহ মোট ১৬ দল নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বসে কোপা আমেরিকার শতবর্ষী আসর। সে আসরকে অবশ্য স্পেশাল এডিশন অভিহিত করে ডাকা হয় কোপা আমেরিকা সেন্তেনারিও! তবে পরের আসর থেকেই আবার পুরনো ফরম্যাটে ফিরে যায় কোপা আমেরিকা!