• ক্রিকেট

সাদা বলে সুপার অফ ফর্মে থাকা লিটন ও মুশফিকের ব্যাটে চড়েই দিন শেষে চালকের আসনে টিম টাইগার্স

পোস্টটি ৩৯৩ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।

FB_IMG_1637977195324এই তো কয়েকদিন আগেই সাদা বলের ক্রিকেটে তুমুল সমালোচনার শিকার লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম ৷ ব্যাট টা যেন হাসতেই চাইছিল না তাই বাংলাদেশের পারফর্ম্যান্স ও ছিল বিবর্ণ ৷ ফলাফল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ থেকে একেবারে খালি হাতে বিমানের ফ্লাইট ধরা ৷ কিন্তু আজ এক অন্যরকম লিটন আর মুশফিক কে দেখল বাংলাদেশ ৷ বরাবরের মতো আজকেও টপ অর্ডার দ্রুতই ফিরে গিয়েছিল বাংলাদেশের ৷ দলীয় যখন ৪৯ রানে বাংলাদেশ চতুর্থ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে তখনই ত্রাতা হিসাবে আবির্ভাব হয় লিটনের ৷ শুরু থেকেই সাবলীল ভাবে খেলছিলেন লিটন অন্যদিকে মুশফিক ছিলেন সাপোর্টিং রোলে ৷ ফিফটির খানিক পরে ৬৬ রানে জীবন পান লিটন দাস  শাহিন শাহ আফ্রিদির বলে ক্যাচ ড্রপ করেন সাজিদ খান ৷ এরপর আর লিটনকে পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি ৷ অনবদ্য সব শট খেলে পেয়েছেন মেইডেন টেস্ট হান্ড্রেডের স্বাদ ৷ আগে আনেকবার নার্ভাস নাইনটিতেই প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয়েছিল ৷ অন্যপাশে মুশফিক ছিলেন আস্থার প্রতীক হয়ে ৷ দিনশেষে রয়েছেন দুইজনেই অপরাজিত ৷ মুশফিক ৮২ রানে আর লিটন ১১৩ রানে ৷ বাংলাদেশকে প্রথম ইনিংসে লিড নিতে হলে করতে হবে পাহাড় সম রান আর তার জন্য এই দুইজনকেই গুরু দায়িত্ব পালন করতে হবে ৷ আপাতত প্রথম দিন শেষে এই দুজনের কল্যাণে কমফোর্ট জোনেই রয়েছে বাংলাদেশ ৷ তবে দায়িত্ব এখানেই শেষ নয় লিটন মুশিদের ৷ পাকিস্তান কে প্রথম ইনিংসে অন্তত ৪৫০+ রানের বোঝা চাপিয়ে দিতে হবে ৷ যদিও এমন ব্যাটিং প্যারালাইসিস উইকেটে বাংলাদেশের বোলার রা বিশেষ করে পেসার রা বাবর রিজওয়ান দের কতটুকু পরীক্ষা নিতে পারবেন সেটার রয়েছে বিশাল সন্দেহ ৷ সাকিব নেই তাই তাইজুলকেই নিতে হবে বাড়তি দায়িত্ব ৷