• ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯
  • " />

     

    • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

    বিশ্বকাপ স্কোয়াড চূড়ান্ত করতে হিমশিম খাচ্ছে ইংল্যান্ড: মরগান

    বিশ্বকাপের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে অনেক আগেই। তবে ইংল্যান্ডের চূড়ান্ত স্কোয়াডে যে বেশ কিছু পরিবর্তন আসতে পারে, সেটার ইঙ্গিতও তখন দেওয়া হয়েছিল। আয়ারল্যান্ড ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের পারফরম্যান্সের পর নতুন কেউ জায়গা করে নিতে পারে বিশ্বকাপ দলে, মানছেন অধিনায়ক এউইন মরগানও। পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডের পর মরগান বলছেন, চূড়ান্ত ১৫ জনের দল সাজাতে হিমশিম খেতে হবে তাদের।

    মূলত পরিবর্তনটা আসতে পারে ইংল্যান্ডের বোলিং লাইনআপে। জোফরা আর্চারকে নিয়ে চলছে সবচেয়ে বেশি আলোচনা। শুরু থেকে তাঁর দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে প্রকাশ্যেই বিরোধিতা করেছিলেন উড-ওকসরা। তবে ইংল্যান্ডের সাবেক অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফসহ অনেকেই তাকে বিশ্বকাপে দেখতে চাইছেন।

    পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে খেলেননি আর্চার। অন্যদিকে লিয়াম প্লানকেট, ডেভিড উইলি ও ক্রিস ওকস সবাই পেয়েছেন উইকেট। বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে নেওয়ার জন্য সবার মাঝেই প্রতিযোগিতা চলছে বলে জানান মরগান, ‘সবাই চেষ্টা করছে অন্যদের চেয়ে ভালো করার। অনেকেই ভালো পারফর্ম করেও শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না। ১৫ জনের দল চূড়ান্ত করতে বেশ বেগ পেতে হবে নির্বাচকদের। অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে ভালো করে আসছে। তাও তাঁরা বিশ্বকাপে সুযোগ নাও পেতে পারে।' 

    বিশ্বকাপের স্কোয়াড থেকে বার পড়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি পাকিস্তানের বিপক্ষে এখনো মাঠে না নামা ক্রিস জর্ডান ও টম কারানের। উইলি ও প্লানকেটের অভিজ্ঞতার কথা মাথায় রেখেই তাদের বাদ দেওয়ার পক্ষে নন মরগান, ‘গত চার বছর থেকে উইলি ও প্লানকেট চাপের মাঝেও খুব ভালো করেছে। তাঁরা অন্যদের মতো বাহবাও পায় না। তাদের যতই দায়িত্ব দেওয়া হোক, সেটা তাঁরা ভালোভাবে পূরণ করে। তাদের অভিজ্ঞতা বিশ্বকাপে খুব কাজ দেবে।’

     

     

    শেষ পর্যন্ত কাকে বাদ দিয়ে চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করবে ইংল্যান্ড, সেটা জানা যাবে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের পরেই।