• ইউরোপা লিগ
  • " />

     

    আর্সেনালের অলিম্পিয়াকস জয়, ব্রুজের সঙ্গে ইউনাইটেডের হোঁচট

    ক্লাব ব্রুজ ১ - ১ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

    গতরাতে ইউরোপা লিগের শেষ ৩২-র ম্যাচে বেলজিয়ান ক্লাব ব্রুজের বিপক্ষে ড্র করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইয়ান ব্রেইদেল স্টেডিয়ামে পূর্ণ শক্তির দল নামিয়েও জয়ের দেখ পায়নি অলে গানার সোলশায়ারের দল। ম্যাচের ১৫ মিনিটে ব্রুজ গোলরক্ষক সিমন মিনোলেটের ফ্রি কিক থেকে ইউনাইটেডের বক্সের সামনে বল পান ফরোয়ার্ড ইমানুয়েল বোনাভেঞ্চুরে। ইউনাইটেড গোলরক্ষক সার্জিও রোমেরোকে গোল ছেড়ে অনেকটা বেরিয়ে আসতে দেখে চিপ করে বল জালে পাঠান তিনি। ইউনাইটেডও একইভাবে ফায়দা লুটেছে প্রতিপক্ষের ভুল থেকে। ৩৬ মিনিটে ব্রুজ ডিফেন্ডার ব্র্যান্ডন মেখেলের ভুলে বল পেয়ে অনেকটা একক প্রচেষ্টায় দারুণ ফিনিশিংয়ের মাধ্যমে ইউনাইটেডকে সমতায় ফেরান মার্শিয়াল।

     

    দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে দুই দলই ম্যাচ জমিয়ে তুললেও গোলের দেখা পায়নি কেউই। ব্রুজের মাঠ থেকে পাওয়া অ্যাওয়ে গোলটিই ম্যাচে ইউনাইটেডের প্রাপ্তি। ২৮ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠেই ইউনাইটেডের সামনে ব্রুজ বাধা টপকে পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়ার বড় পরীক্ষা। 

     

    অলিম্পিয়াকোস ০ -১  আর্সেনাল

    গ্রিক ক্লাব অলিম্পিয়াকোসকে ১-০ গোলে হারিয়ে পরবর্তী রাউন্ডের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেছে আর্সেনাল। অলিম্পিয়াকোসের মাঠ কারাইসকাকিস স্টেডিয়ামে দুই দলই শুরু থেকে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে। ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই বক্সের ভেতর ইউসেফ আল আরাবির পাস ধরে গোলমুখে প্রবল গতির এক শট নেন ম্যাথিউ ভালবুয়েনা। কিন্তু আর্সেনাল গোলরক্ষক লেনো দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন সেই প্রচেষ্টা। ২০ মিনিটে গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেলির কাছ থেকে বল পেয়ে একেবারে ক্লোজ রেঞ্জ থেকে গোল মিস করেন অ্যালেক্স লাকাজেট। তবে ম্যাচের ৮১ মিনিটে বক্সের বাঁ পাশ থেকে বুকায়ো সাকার লো ক্রসে গোলের সামনে থেকে পা ছুঁইয়ে জয়সূচক গোলটি করেন তিনি।

    প্রথম লেগে ১-০ গোলে এগিয়ে থাকায় ২৮ ফেব্রুয়ারি ঘরের মাঠে দ্বিতীয় লেগে মিকেল আরটেটার শিষ্যরা কিছুটা নির্ভার হয়েই মাঠে নামতে পারবে।

    এদিকে ইউরোপা লিগের শেষ ৩২-র প্রথম লেগের অন্য ম্যাচগুলোতে বুলগেরিয়ার ক্লাব লুডোগরেটসের মাঠ থেকে ২-০ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছে ইন্টার মিলান। ম্যাচের ৭১ মিনিটে ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনের গোলে এগিয়ে যায় তারা। জানুয়ারির দলবদলে ইন্টারে যোগ দিয়েছিলেন এরিকসেন। নেরাজ্জুরিদের জার্সিতে এটিই তার প্রথম গোল। এরিকসেনের গোলের পর যোগ করা সময়ে রোমেলু লুকাকুর গোলের সুবাদে প্রথম লেগ শেষে ২-০ গোলে এগিয়ে আন্তোনিয়ো কন্তের ইন্টার।

    এছাড়া গেটাফের বিপক্ষে ২-০ গোলে হেরেছে আয়াক্স। এস্পানিওলকে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে হারিয়ে আরেক ইংলিশ ক্লাব উলভস পরবর্তী রাউন্ডের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেছে। সিএফআর ক্লুজের সঙ্গে তাদের মাঠে ১-১ গোলে ড্র করেছে সেভিয়া, শাখতার নিজেদের মঠে ২-১ গোলে হারিয়েছে বেনফিকাকে। লেভারকুসেম নিজেদের মাঠে ২-১ গোলে হারিয়েছে পোর্তোকে, আর গেন্টকে নিজেদের মাঠে ১-০ গোলে হারিয়েছে রোমা। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন