• ইউরোপা লিগ
  • " />

     

    লাস্ককে উড়িয়ে কোয়ার্টারে এক পা দিয়ে রাখল ম্যান ইউনাইটেড

    ইউরোপা লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে লাস্কের বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। অস্ট্রিয়ান ক্লাবটির জালে পাঁচটি গোল দিয়ে কার্যত ফিরতি লেগের সব হিসাব-নিকাশ নিজেদের পক্ষে নিয়ে এসেছে ম্যান ইউনাইটেড।

    ম্যাচের ২৮ মিনিটে অডিওন ইঘালোর দারুণ গোলে এগিয়ে যায় রেড ডেভিলরা। ব্রুনো ফার্নান্দজ গতির উপর করা ফরোয়ার্ড পাস তিন টাচে নিয়ন্ত্রণ করে টপ কর্নার কাঁপিয়ে দেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড।প্রথমার্ধে আর কোনও গোল পায়নি ইউনাইটেড।

    তবে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই লাস্ককে কোনও সুযোগ না দিয়ে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকে ওলে গানার সোলশারের দল। ফল হিসেবে ম্যাচের ৫৮ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ড্যানিয়েল জেমস। এরপর স্বাগতিকদের উপর চাপ বাড়িয়েই চলে ইউনাইটেড। আর তাদের ক্রমাগত চাপের ম্যাচের শেষ দিকে এসে রীতিমত ভেঙ্গে পড়ে অস্ট্রিয়ার ক্লাবটি। ৮২ মিনিটে হুয়ান মাতার গোলে ম্যাচ থেকে পুরোপুরি ছিটকে যায় স্বাগতিকরা। আর যোগ করা সময়ের প্রথম ও তৃতীয় মিনিটে যথাক্রমে ম্যাসন গ্রিনউড এবং আন্দ্রিয়াস পেরেইরার গোলে লাস্ককে তাই লড়াই থেকেই ছিটকে দেয় ইউনাইটেড। 

    জানুয়ারিতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আসা দুই খেলোয়াড় অডিওন ইঘালো এবং ব্রুনো ফার্নান্দজ জ্বলে উঠছেন নিয়মিত। দলে আসার পর থেকে এখন পর্যন্ত ৯ ম্যাচ খেলে ৩ গোল করেছেন ফার্নান্দজ, আর গোল বানিয়ে দিয়েছেন ৪ টি। একইভাবে চীনা ক্লাব সাংহাই সিনহুয়া থেকে ওল্ড ট্রাফোর্ডে আসার পর থেকে এখন পর্যন্ত ৯ ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ৪ টি, গতরাতে ইউনাইটেডের দ্বিতীয় গোলটি বানিয়েও দিয়েছেন তিনি। চীন থেকে ১ ফেব্রুয়ারি ম্যানচেস্টারে আসার পর করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত সতর্কতার জন্য মূল দল থেকে আলাদা অনুশীলনও করেছেন। তাই কিছুটা দেরীতে খেলা শুরু করলেও ইউনাইটেডের খেলার ধরনের সঙ্গে দ্রুতই মানিয়ে নিয়েছেন এই ফরোয়ার্ড।

    এছাড়া ইউরোপা লিগে গতরাতে অন্য ম্যাচগুলোর মাঝে অলিম্পিয়াকোসের মাঠে ১-১ গোলে ড্র করেছে আরেক ইংলিশ ক্লাব উলভস। আর ফ্রাঙ্কফুর্টকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে সুইস ক্লাব বাসেল, রেঞ্জার্সের বিপক্ষে ৩-১ গোলে বায়ার লেভারকুজেন এবং কোপেনহেগেনের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় পেয়েছে ইস্তাম্বুল বাসাকসেহির। করোনা ভাইরাসের কারণে সেভিয়া-রোমা এবং ইন্টার মিলান-গেটাফের ম্যাচ দুটি স্থগিত হয়েছিল আগেই।

    এদিকে আজ শুক্রবার এক বিবৃতি দিয়ে আগামী সপ্তাহের ইউরোপা লিগের দ্বিতীয় লেগের সব ম্যাচ স্থগিত করেছে ইউয়েফা।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন