• ক্রিকেট

ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম টি-টোয়েন্টির যত রেকর্ড

পোস্টটি ১০৭৩ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।

Untitled

  • এক ম্যাচে সর্বোচ্চ রান

এই ম্যাচে দুই দলের রানের যোগফল ৪৮৯, আন্তর্জাতিক ম্যাচে আগের রেকর্ড ছিল ৪৬৭। জোহানসবার্গে যে ম্যাচে সাউথ আফ্রিকার প্রতিপক্ষ ছিল এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর বাইরে আইপিএলে একবার রাজস্থান রয়্যালস আর চেন্নাই মিলে করেছিল ৪৬৯ রান।

  • আন্তর্জাতিক ম্যাচে সর্বাধিক চার-ছক্কা

এ খেলায় দুই দল হাঁকিয়েছে ৩২ ছক্কা, যার ২১ টি ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর ১১টি ভারত। তবে চারের হিসাবে এগিয়ে ভারত, মোট ৩৫ চারের ২২ টি ভারত আর ১৩টির অবদান ওয়েস্ট ইন্ডিয়ানদের। এর আগে আন্তর্জাতিক টি -টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি চার ছক্কার রেকর্ড ছিল নেদারল্যান্ড আর আয়ারল্যান্ডের। ২০১৪ বিশ্বকাপে সিলেটের মাঠে ডাচ আর আইরিশরা ছক্কা মেরেছিল ৩০টি আর চার ২৫টি, সবমিলে ৫৫। তবে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশি চারের রেকর্ড ভাঙতে পারেননি এরা। এই রেকর্ডেও অবশ্য আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের নাম। ২০১৫তে জোহানসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকানদের সাথে মিলে ক্যারেবিয়রা হাকিয়েছিলেন ৪৪ টি চার।

  • চার ছয়ে সব চেয়ে বেশি রান

টি  টোয়েন্টিতে না দৌড়ে সবচেয়ে বেশি রানের তালিকায় সবার উপরে এখন এই ম্যাচটি। দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৪৪ চার আর ২৪ ছয়ে ৩২০ রানের রেকর্ড ভেঙ্গে এই ম্যাচে হল ৩৩২ রান (৩৫ চার, ৩২ ছক্কা)।

  • পরাজিত দলের সর্বোচ্চ রান

জোহানসবার্গে ২৩১ রানের পরও দক্ষিণ আফ্রিকার ৪ উইকেটের পরাজয় মানতে পারেননি অনেক প্রোটিয়া সমর্থক। আজ ভারত ২৪৪ রান করেও হারলো ১ রানে। এটিই এখন  আন্তর্জাতিক টি  টোয়েন্টিতে পরাজিত দলের সর্বোচ্।

  • এক ম্যাচে  দুই সেঞ্চুরী

এভিন লুইসের ৪৮ বলে করা শতকের জবাব লোকেশ রাহুল দিলেন ৪৬ বলে শতক করে। এর আগে আন্তর্জাতিক টি  টোয়েন্টিতে দুই সেঞ্চুরী দেখে নি কোন ম্যাচ। 

  • ভারতের সর্বোচ্চ টি-টোয়েন্টি স্কোর

ভারতের সর্বোচ্চ টি-টোয়েন্টি স্কোর এটি। এর আগে তাদের সেরা ছিল ডারবানে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যুবরাজের ৬ ছক্কার ম্যাচে করা ২১৮।

  • ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেরা টি-টোয়েন্টি স্কোর

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সর্বোচ্চ টি-টোয়েন্টি স্কোর এটি। ২০১৫তে জোহানসবার্গে আরেক রেকর্ডময় ম্যাচে তারা করেছিল তাদের আগের সর্বোচ্চ ২৩৬।

  • আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি অধিনায়কত্ব

এখন সবচেয়ে অভিজ্ঞ আন্তর্জাতিক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি, এই দিন মাঠে নেমেই পিছনে ফেললেন রিকি পন্টিংকে। পন্টিং এর ৩২৪ আন্তর্জাতিক ম্যাচের অধিনায়কত্বকে পিছে ফেলে ধোনি অধিনায়কত্ব করলেন ৩২৫তম বারের জন্য। ৯ বছরে নেতৃত্ব দিয়েছেন ৬০ টি টেস্ট, ১৯৪ টি ওয়ানডে আর ৭১ টি  টোয়েন্টিতে। জিতেছেন ২৭ টেস্ট, ১০৭ ওয়ানডে আর ৪০ টি-টোয়েন্টি। মাত্র তৃতীয় অধিনায়ক হয়ে ১০০র বেশি ওয়ানডে জয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন। উইকেটকিপার অধিনায়কের কৃতিত্ব হিসাবে বসলে হার মানবেন সবাই। তার আগে এমন কৃতিত্ব দেখাতে পারেননি কোনও কিপারই। নিঃসন্দেহে বলা যায় এই রেকর্ড ভাঙা যথেষ্ট কঠিন হবে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য।

 এছাড়াও এ ম্যাচে হয়েছে কিছু ছোটখাট রেকর্ডও। এদিন সেঞ্চুরী করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন সংস্করণেই সেঞ্চুরীর সংক্ষিপ্ত তালিকায় ঢুকে গেলেন লোকেশ রাহুল। তার আগে এই কৃতিত্ব দেখাতে পেরেছেন মাত্র ১৯ জন যার মধ্যে ভারতের ২ জন। স্টুয়ার্ট বিনির করা একমাত্র ওভারে এভিন লুইসের নেওয়া ৩২ যেকোনো টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় খরুচে ওভারের তালিকায় থাকবে। ছয় ছক্কায় ৩৬ দিয়ে সবার উপরে আরেক স্টুয়ার্ট, স্টুয়ার্ট ব্রড। তবে ব্রডের রেকর্ড ৯ বছরে না ভাঙলেও দ্রুতই রিচার্ড লেভির ৪৫ বলে করা শতকের রেকর্ড ভাঙবে তা বলাই যায়। এদিন প্রথমে লুইস ৪৮ বলে আর রাহুল ৪৬ বলে শতক করে বুঝিয়ে দিলেন দ্রুতই নতুন মালিক আসছে রেকর্ডটির।