X
GO11IPL2020
  • টেনিস

রেকর্ডের উইম্বল্ডন নারী ফাইনাল

পোস্টটি ৩০২৩ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।
ব্রিটিশজোহানা কোন্টাকে হারিয়ে ভেনাস উইলিয়ামস আর রুশ রিব্যারিকোভাকে হারিয়ে গারবিনা মুগুর্জা ফাইনালে উঠলেন তখন দুজনের রেকর্ডের মুখোমুখি। মুগুর্জা দাঁড়িয়ে প্রথম উইম্বল্ডনের সামনে আর ভেনাস সবচেয়ে বেশি বয়সী হিসেবে উইম্বল্ডন জয়ীর নাম নিজের করতে। সেই রেকর্ডকে সামনে রেখেই উইম্বল্ডনের সেন্টার কোর্টে নেমেছিলেন ভেনাস আর মুগুর্জা। র‍্যান্কিংয়ে ১৪ নম্বরে থাকা মুগুর্জার দ্বিতীয় ফাইনাল। ভেনাসের ১৬ নম্বর ফাইনাল। প্রথমের আঘাত হানেন মুগুর্জা। সমানে লড়ছিলেন ভেনাসও। তবে প্রথম সেটে হেরে গেলেন ৭-৫ গেমে। প্রথমে এগিয়ে গেলেও পরে সমতা আনেন ৫-৫ এ। এরপর টানা দুই গেম জিতে নেন মুগুর্জা। ফলে ৭-৫ গেমে প্রথম সেট বগলদাবা করেন তিনি। এরপরে আর পাত্তাই পাননি ভেনাস। ৬-০ গেমে হারিয়ে সরাসরি সেটে হারিয়ে ফাইনালটা নিজের করে নেন গার্বিন মুগুর্জা ব্লান্কো। দ্বিতীয়বারের মতো গ্র‍্যান্ডস্লাম জিতলেন মুর্গুজা। এর আগে ফ্রেঞ্চ ওপেনের রোঁলা গ্যারোর কোর্টে সেরেনাকে হারিয়েছিলেন তিনি। ছয়ফুটি গার্বিন হলেন প্রথম নারী যিনি উইলিয়ামস বোনদ্বয়কে হারিয়েছেন গ্র‍্যান্ডস্লাম ফাইনালে। ক্যারিয়ারের প্রথম উইম্বল্ডন জিতে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন মুগুর্জা। ভেনাসও বড় হিসেবে দিয়েছেন উপদেশ, জানিয়েছেন অভিনন্দন। নিজের বোনকে হারানোর বদলা না নিতে পারলেও অখুশি লাগেনি তাকে। ১৬ ফাইনালে মাত্র ৭ টীতে জয়। নবমবারের মতো হারলেন তিনি ফাইনালে। অনেকটা কুফাই বলা চলে। ম্যানোলো সান্তানা, কঞ্চিতা মার্টিনেজ, রাফা নাদালদের পর চতুর্থ স্প্যানিশ হিসেবে উইম্বল্ডন জিতলেন গার্বিন মুগুর্জা। স্প্যানিশ সুন্দরী নারী টেনিসের আরো শিরোপা নিজের অর্জনে যুক্ত করুক সেই প্রত্যাশা...