• ফুটবল

বর্ণবাদ আর ইতালিয়ান ফুটবল

পোস্টটি ১৮৪৪ বার পঠিত হয়েছে

গত নভেম্বরে ইতালির শীর্ষ স্থানীয় এক দৈনিক করিয়েরে দেল্লো স্পোর্ট এর ফ্রন্ট পেজে ব্ল্যাক ফ্রাইডে উপলক্ষে একটি প্রচ্ছদ ছাপায়, যেখানে রোমেলু লুকাকু এবং ক্রিস স্মলিংয়ের ছবি ব্যবহার করে। সাধারণত নভেম্বরের চতুর্থ বৃহস্পতিবার থ্যাংকস গিভিংয়ের ডে পালনের পরদিন যুক্তরাষ্ট্র সহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে ব্ল্যাক ফ্রাইডে উদযাপন করা হয়; যেখানে দোকানী কিংবা ব্যসায়ীরা গ্রাহকদের জন্যে অল্পমুল্যে তাদের পণ্য বিক্রয় করে! উক্ত দিনে ইন্টার বনাম রোমা'র হাইভোল্টেজ ম্যাচ উপলক্ষেই পত্রিকাটি লুকাকু ও স্মলিং'র ছবি ব্যবহার করে প্রচ্ছদ ছাপায়; তবে বিপত্তিটা বাঁধে যখন শিরোনামের আড়ালে খুব সুক্ষ্মভাবে বর্ণবাদ কে প্রমোট করা হয়! প্রচ্ছদে লুকাকু কে ব্ল্যাক এবং স্মলিং কে ফ্রাইডে বলে চিহ্নিত করা হয়!

একজন খেলোয়াড়কে তার গায়ের রং কিংবা জাতিসত্তা অনুযায়ী বিভক্ত করা একটা শীর্ষস্থানীয় পত্রিকার কাছে মোটেই কাম্য নয়, কিন্তু যখন পত্রিকাটি ইতালিয়ান, তখন তা খুব বেশি অবাক করার জায়গা রাখেনা!

 

download

চারিদিক থেকে যখন সমালোচনার ঝড় বইছিলো, ঠিক তখনই স্পোর্টের বার্তাপ্রধান সাফাই গাইলেন - তোমরা আমাদের রেসিস্ট বলার কে!

সমস্যাটা হলো, সমালোচনাগুলো ঠিক ইতালি কিংবা ইতালির জনগণের কাছে থেকে আসছিলোনা; আসছিলো অন্যান্য দেশের গণমাধ্যম, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে! ইতালির এসবে একদম মাথাব্যাথা নেই, এমন বর্ণবাদী আচরণ তাদের বিবেকে নাড়া দেয়না! বরং আপনি ইতালির স্টেডিয়াম, শহর বন্দর, মিডিয়া কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া যেখানেই নজর রাখবেন, বর্ণবাদের বিষাক্ত বাতাস আপনার নিঃশ্বাসে প্রবেশ করবে! ইতালির অধিকাংশ জনগণই বুঝতে চায়না বর্ণবাদ ঠিক কতটা অন্ধকারাচ্ছন্ন অধ্যায়! সমালোচনার বদলে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারাও উক্ত শিরোনামের পক্ষে কথা বলে গেছেন।

অতিসম্প্রতি লুকাকু কিংবা বালোতেল্লি ম্যাচ চলাকালীন সময়ে নিজ দলের সাপোর্টারদের কাছে বর্ণবাদের স্বীকার হয়েছে! লুকাকু থামাতে হলে ডিফেন্ডারদের কি করা উচিত প্রশ্নে একজন ইতালিয়ান সাংবাদিক লাইভে এসে বলে বসে, ”১০ টি কলা"ই যথেষ্ট! গত দুই সিজনে কেবল যুব লীগ গুলো থেকেই ৮০ টিরও বেশি বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ রেকর্ড করা হয়েছে! কিন্তু ইতালি ফুটবল ফেডারেশন কিংবা মেইনস্ট্রিম মিডিয়া কিংবা সোশ্যাল মিডিয়াতেও এ নিয়ে কোন মাথাব্যথা নেই!

উক্ত শিরোনাম নিয়ে লুকাকু নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন - নির্বুদ্ধিতা ও মুর্খতার উৎকৃষ্ট উদাহরণ! রোমা ডিফেন্ডার স্মলিং'ও সোচ্চার ছিলেন এর বিরুদ্ধে! অথচ করিয়েরে দেল্লো স্পোর্ট এডিটর ইন চিফ ইভান জাজ্জারনি ক্ষমা চাওয়ার বদলে বলে বসলেন - তোমরা আমাদের রেসিস্ট বলার কে!

দুই সপ্তাহ আগেই সিরি আ'র ২০ টি ক্লাব একটি উন্মুক্ত চিঠি লেখে যেখানে সবাইকে রেসিজমের বিপক্ষে দাড়ানোর উদাত্ত আহবান জানান! কেবলমাত্র রোমা আর মিলান চিহ্নিত কয়েকজন সাংবাদিককে তাদের স্টেডিয়ামে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে!

 

Serie A Against Racism Graphic EN

অথচ সিরি আ কর্তৃপক্ষ ফেডারেশন ভবনের সামনে তিনটি বানরের ছবি অঙ্কন করেছে, যার একটি পশ্চিমা বানর, অপরটি এশিয়ান বানর, অন্যটি আফ্রিকান কালো বানর! তাদের মতে এটি সমঅধিকার, ভাতৃত্ববোধের পরিচায়ক এবং ভিন্ন ভিন্ন সংস্কৃতির মেলবন্ধনের ধারক! ইতালির বৈষম্যবাদ বিরোধী কয়েকটি সংগঠন এটিকে অসুস্থ মস্তিষ্কের কর্মকাণ্ড এবং অকথ্য নিষ্ঠুরতার পরিচয় বলে আখ্যা দিয়েছে!

 

191216161757-serie-a-anti-racism-campaign-super-169

তারা তাদের স্টেটমেন্ট এ বলেন "আরো একবার ইতালিয়ান ফুটবল বিশ্ববাসীকে বাকরুদ্ধ করে ফেললো! সিরি এ কর্তৃপক্ষ কি ভাবছে তা বলা কঠিন, কিন্তু বানর কে ব্যবহার করে এন্টি রেসিজম ক্যাম্পেইন করা কোম জুতসই উদাহরণ হতে পারেনা! খুব সুক্ষ্ণভাবে এটি আমাদের ক্ষতিসাধন করছে। সিরি এ কর্তৃপক্ষ যখনই বর্ণবাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ নিয়েছে, সেখানেই উল্টো বিপত্তি বেঁধেছে, যেনো গন্ডগোল ঠিক তাদের রন্ধ্রে!"

ঠিক কোন কোন ব্যাপারগুলো রেসিজম কে প্রমোট করতেছে সে ব্যাপারে, বর্ণবাদী আচরণ কে উদ্ভুদ্ধ করতেছে সময় এসেছে ইতালি'র তা নিয়ে ভাবার! সময়ের পরে সময় গড়িয়েছে, একটার পর একটা ঘটনা ঘটছে, বর্ণবাদের বিরুদ্ধে ইতালি ফুটবল তাদের অবস্থান কে প্রশ্নবিদ্ধ করছে!

স্টেডিয়ামে লুকাকুর উদ্দেশ্যে বানরের ডাক দেওয়ার ঘটনার পরে একটি সংগঠিত ফ্যান্স গ্রুপ লুকাকুকে চিঠি দিয়েছিলো, যেখানে লেখা ছিলো - ইতালির দর্শকদের এমন আচরণ তুমি পজিটিভলি নাও, ধরে নাও তারা তোমার পারফরম্যান্স নিয়ে ভীত সশস্ত্র অবস্থায় আছে, তাই তোমায় মক করছে! ইউরোপের বাকী দেশগুলোর মতো ইতালি বর্ণবাদ নিয়ে খুব বেশি সচেতন নয়! তারা বর্ণবাদকে একটি সমস্যা হিসেবে বিবেচনা করতে পারেনি!"

 

3ea5dac0-d89e-11e9-bf73-73a504a0d172

লুকাকুর ব্যাপারে তদন্ত শেষে তদন্ত কমিটি জানায়, তাদের স্কেল অনুযায়ী চ্যান্ট'টি খুব বড় কোন অন্যায় নয়! আবারো অমর্যাদাকর সিদ্ধান্তে ইতালিয়ান ফুটবলের প্রশ্নবিদ্ধ অবস্থান সুদৃঢ় হয়!

গত সিজনের কথা ভুলে গেলে চলবেনা! জুভেন্টাস স্ট্রাইকার মইসে কেনের প্রতিও একই বিরুপ আচরণ করা হয়! কাগালিয়ারি কর্তৃপক্ষ জানায়, কেন কে স্লেজিং করা হয়েছে, কোনভাবেই বর্ণবাদী আচরণ করা হয়নি! এমনকি জুভেন্টাস কোচ, জুভেন্টাস ডিফেন্ডার বনুচ্চিও কেনের করা অভিযোগের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়!

মারিও বালোতেল্লি'র কথা আসলেও, একই গল্প উচ্চারিত হবে! ক্যারিয়ার জুড়েই যিনি অসংখ্যবার রেসিজমের স্বীকার হয়েছেন, স্বয়ং নিজ দেশের ফ্যান দ্বারা! গত নভেম্বরে ভেরোনার বিপক্ষে ম্যাচে বর্ণবাদের স্বীকার হোন বালোতেল্লি, রাগে গ্যালারি তে বল ছুড়ে মারেন! ম্যাচ শেষে ভেরোনা কোচ বলে দেন, এসব চ্যান্ট বা কর্মকাণ্ড রেসিজমের সাথে সম্পর্কিত নয়!

 

9f8ef05b36f0c3dff1133155bebeef8b

ইতালিয়ান ফুটবলের সাথে জড়িত বেশিরভাগ কর্তাব্যক্তিই নানান সময়ে নানান আচরণে বর্ণবাদী আচরণের দায়ে প্রশ্নবিদ্ধ! এ অবস্থার পরিবর্তন হওয়া জরুরি! ইতালির জাতিসত্তা থেকে যতদিন না বর্ণবাদের বীজ ধ্বংস হচ্ছে ততদিন এমন অবস্থা চলতেই থাকবে আর সাদা চামড়ার কিছু লোক অভিযোগ করেই যাবে যে আমরা তাদের রেসিস্ট বলার কে!

'প্যাভিলিয়ন ব্লগ’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। প্যাভিলিয়ন ব্লগে প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি এবং ভিডিওর সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক এবং মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।