• ক্রিকেট

হারিয়ে যাওয়া প্রতিভা-৩য় পর্ব

পোস্টটি ১৩৮৬ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।

বিনোদ কাম্বলি

 

যখন ভারতের হারানো প্রতিভাগুলির কথা আসে তখন বিনোদ কাম্বলির নামটি সবচেয়ে জোরে শোরে উচ্চারিত হয়।মুম্বাইয়ের আন্তঃস্কুল ম্যাচে শচীন তেন্ডুলকারের সাথে ৬৬৪ রানের রেকর্ড অপরাজিত জুটি গড়ার পর থেকে দেশ বিদেশে তার নাম ছড়িয়ে পড়ে।বিভিন্ন বয়স ভিত্তিক টুর্নামেন্টে তাদের উত্থানের কাহিনী ক্রিকেট মহলে বিশেষ চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।ক্রিকেট প্রেমীরা আশা করতে শুরু করে টেন্ডুলকার এবং কাম্বলি দু'জনই এক পর্যায়ে ভারতের ব্যাটিংয়ে প্রধানতম স্তম্ভে পরিণত হবে। 

 

 

 

 

1627915663701

 

 

 

 

১৯ বছর বয়সেই ১৯৯১ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে শারজায় একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক।১৯৯২,১৯৯৬ বিশ্বকাপে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করছে।১০৪টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে মাত্র দুটি শতরান,৩২.৫৯ গড়ে ২৪৭৭ রান।একদিনের ক্রিকেটে অভিষেকের পর নিয়মিতভাবে সুযোগ পেলেও তার সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারেনি।টেস্ট ক্রিকেটে তার প্রতিভার ঝলক দেখেছিল ক্রিকেট বিশ্ব।সাদা পোশাকে তার শুরুটা ছিল স্বপ্নের মত।যেখানে শচীন টেডুলকারকে তার প্রথম টেস্ট দ্বিশতক পেতে অপেক্ষা করতে হয়েছে প্রায় দশ বছর সেখানে বিনোদ কাম্বলি শচীনের তিন বছর পরে টেস্ট অভিষেক করে প্রথম সাত টেস্টে দু দুটি দ্বিশতক করতে পেরেছিল।এমন উড়ন্ত সূচনা যেকোন ক্রিকেটারের কাছে স্বপ্নের মত। টেস্টে তার অভাবনীয় সাফল্য ক্রিকেটমোদীদের স্বপ্ন দেখিয়েছিল বিনোদ কাম্বলি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দীর্ঘ সময়ের জন্য আধিপত্য করবে। শচীন তেন্ডুলকার তার কিশোর বয়সের খ্যাতিকে সামাল দিয়ে ক্রমশ সামনের দিকে এগিয়েছে সেখানে উড়তে থাকা বিনোদ কাম্বলি খেই হারিয়ে বিস্মৃতির অতল গহ্বরে তলিয়ে গেছে।আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিতি অর্জন করেও মাত্র ২৩ বছর বয়সে শেষ টেষ্ট আর ২৮ এ শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে।অফুরন্ত প্রতিভা নিয়ে জন্মেও শুধুমাত্র সঠিক দিশার অভাবে তার মতো সম্ভনাময় ব্যাটসম্যানের ব্যার্থতা ক্রিকেট বিশ্বকে স্তম্ভিত করে দিয়েছে।তার এই অমার্জনীয় ব্যার্থতা আজও ক্রীড়া প্রেমীদের ভাবায়।১৭ টেস্টে ৫৪.২০ গড়ে ১০৮৪ রান।অথচ ভারতের সর্বকালের সেরা টেষ্ট ব্যাটিং গড়ের তালিকায় আজও বিনোদ কাম্বলির নামটি শীর্ষে রয়েছে।প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটেও তার রেকর্ড ঈর্ষণীয়।১২৯টি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলে প্রায় ষাট ( ৫৯.৯৭) গড় নিয়ে সর্বকালের সেরাদের তালিকায় দশম স্থান।

 

চলবে.....

 

Images courtesy :www.gettyimages.com

তথ্য সূত্র : www.cricbuzz.com