• ক্রিকেট

কবিতার একাদশ : দ্বিতীয় পর্ব (দ্বিতীয়াংশ)

পোস্টটি ৩৪৫ বার পঠিত হয়েছে
'আউটফিল্ড’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। এখানে প্রকাশিত সব লেখা-মন্তব্য-ছবি-ভিডিও প্যাভিলিয়ন পাঠকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে নিজ উদ্যোগে করে থাকেন; তাই এসবের সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক ও মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।
ক্রিকেট নিয়ে কবিতা লেখা হয় মাঝেমধ্যেই। এই প্যাভিলিয়ন ব্লগেই প্রথম পর্ব বা প্রথম একাদশ প্রকাশিত হয়েছিল। আমার সৌভাগ্য বলতে হয়, সেই কবিতার একাদশ নিয়ে কেউ আপত্তি জানায়নি। বরং শুভাকাঙ্খী কেউ কেউ উৎসাহিত করেছেন। ব্যস, উন্মাদকে আশকারা দিলে যা হয় আর কি! দ্বিতীয় পর্ব বা কবিতার আরো একটি একাদশ সাজানোর স্পর্ধা করে বসেছি।
অনুরাগী এবং অনাগ্রহী সকলের প্রশ্রয়পূর্ণ আশকারা-ই বরাবরের মতো প্রত্যাশা।
__________________________________________________________
ব্লগের শব্দসংখ্যা সীমাবদ্ধতার কারণে এক লেখায় একাদশটা শেষ করা যায়নি। এই অংশেও দেখা গেল শব্দসংখ্যার অনুমতি মিলছে না। তাই পরের অংশে শেষ করা ছাড়া উপায় নেই।
 
দ্বিতীয় পর্বের প্রথম অংশের লিংক
https://pavilion.com.bd/user/feeds/6431/details
__________________________________________________________
 
ইংরেজ ক্রিকেট লিখিয়েরা বেশ কয়েকটা পোকা ঢুকিয়ে দিয়েছেন মাথায়। একটা হচ্ছে ক্রিকেট সাহিত্য। ক্রিকেট নিয়ে গল্প। আর অন্যটা হচ্ছে কবিতা। তো পোকাদের যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে বেশ কিছু কবিতা কিভাবে কিভাবে যেন লেখা হয়ে গেছে!এবং সেসব দিয়ে একাদশ একটি গিয়ে আরো একটি দাঁড় করানো যাচ্ছে। তবে এবারকার একাদশটি বোধহয় প্রথম একাদশের তুলনায় তুলনামূলক ভারসাম্যপূর্ণ। আগেরবার যেখানে উইকেট কিপারের অভাব ছিল চোখে পড়ার মতো, রাহুল দ্রাবিড় কে দিয়ে কোনোমতে কাজ চালিয়ে নেয়া। এবার সেখানে উইকেট কিপারের খামতি নেই। গত একাদশে অলরাউন্ডার ছিল একগাদা, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অবস্থান হয়েছিল নয় নাম্বারে। মাশরাফি-বেন স্টোকস-ক্যালিস দিয়ে পেস এ্যাটাক দাঁড়িয়েছিল, এবার পেস আক্রমণে আছে নমস্য সব নাম। স্পিন আক্রমণে আছে অলটাইম গ্রেট, তিন-চার-পাঁচ খুব সম্ভব যেকোনো একাদশে পরম আকাঙ্খিত। একটাই সমস্যা সাঙ্গাকারা ওপেনিংয়ে। আগেরবার তিনটে ওপেনার পেয়েছিলাম, এবার সাঙ্গাকারাকে ওপেনিংয়ে না পাঠিয়ে উপায় নেই আমাদের। টপ অর্ডার আপনারা পেয়েছেন প্রথমাংশে, এবার মিডল অর্ডার দিয়ে সাজানো হলো। বোলিং ইউনিটটা তোলা রাখতে হচ্ছে পরের অংশের জন্য।
 
তাহলে দেখা যাক একদাশটা কেমন দাঁড়ালো।
__________________________________________________________
 
এন্ডি ফুল
 
শৈশবে ক্রিকেট-প্রেম ফুলটির
কুঁড়ি হয়ে ফোটার সময়ে
একজন মানুষ-ফুল-কে দেখা
চোখে অবাক মুগ্ধতা নিয়ে।
 
ক্রিকেট মাঠের সবুজ নন্দনে
কত ফুল ফুটিয়েছেন তিনি—
সুবাস-সৌরভে বিমোহিত চোখ
ভোলেনি এখনও জানি।
 
ভাইয়ের সঙ্গে জোড়া-ফুল হয়ে
দাঁড়িয়েছেন কত কতবার!
তড়িৎ গতির রিভার্স সুইপটা...
যেন মেটে না সাধ, দেখেও সহস্রবার।
 
১৯৯ নট আউট স্বাক্ষী—
একজন নিঃসঙ্গ শেরপার,
স্বদেশের বিপদে, সাহসে-গৌরবে
বরাবরই ছিলেন সোচ্চার।
 
হোক ব্যাটে বা গ্লাভসে কিংবা কালো আর্মব্যান্ডে
লড়াকু একজন তিনি;
খুনে ফাস্ট বোলার বা স্বদেশী স্বৈরাচার—
যাকে কখনো দমাতে পারেনি।
 
শৈশবের অবাক মুগ্ধতা
মন-বাগানে চির অম্লান ‘এন্ডি ফুল’ হয়ে—
স্মৃতির কুঠুরে সুখের অনুরণ,
নাইন্টিজ ক্রিকেট
আর সোনালী প্রজন্মের জিম্বাবুয়ে!
১৭ই জানুয়ারি, ২০২০
 
আশরাফুল যামানার দর্শক
 
শৈশবের সাধারণ খেলার বিকেল
রাঙিয়েছেন আপনি, আপনার রঙে
রাতের বিরক্তিকর পড়ার প্রহর
ঝকমকে হয়েছে আনন্দ-ঢঙে।
 
শিহরণ-সঙ্গে কত সুখময় রাতজাগা
দিয়েছেন উপহার আমাদের,
আপনার এক-একটি ক্রিকেট-উপাখ্যান
যেনো অমলিন স্মৃতি, শৈশবের।
 
এদেশের ইতিহাসে ক্রিকেট-পথচলায়
যেনো-বা সযতন নামাঙ্কন
কার্ডিফ, গায়ানা, হারারে, কলম্বো...
জ্বলজ্বলে হীরের মতোন।
 
শত অসম্ভবে ছিলেন প্রবল আশাবাদ হয়ে
কোটি চোখে স্বপ্নসুখের বিচরণ,
দাঁড়াবেন আপনি, জেতাবেন আপনি
আপনি অতি-মানব, সাধারণ নন।
 
ক্রিকেটময় কত সন্ধ্যা-দুপুর-রাত্রি-বিকেল
শৈশবের কত কত দিন...
সাদামাটা সেই ফটোগ্রাফ, আপনারই জন্য
জানি, ছোপ ছোপ রঙিন।
 
আশার ফুল মরে গেছে সেই কবে
পঁচে যদি দুর্গন্ধও ছড়ায়,
শৈশবের স্মৃতিটুক অমলিন জানি,
সেই আশরাফুল যামানায়।
৭ই জুলাই, ২০২১

 

মুশফিকুর, আপনাকে বলছি—
 
আপনার ক্ষীণকায় কাঁধে সওয়ার কতবার!
আহা-উঁহু নয় মোটেও,
উলটো দাঁতে দাঁত চেপে সওয়ারীকে দিয়েছেন আরাম,
কাঁধটা চওড়া করে, ছুটেছেন দুর্নিবার।
 
দুর্বিনীত চোখ মেলে বল রেখে বুকে
লড়েছেন সামর্থ্যের সবটা দিয়ে,
বিজয়ের রাজতিলক এনেছেন পেড়ে
সমস্ত ঝঞ্ঝাট পেরিয়ে।
 
সম্মুখের পথ মসৃণ নয় একদম,
এবড়ো-থেবড়ো, খাদে-গর্তে পরিপূর্ণ;
সেইসব মাড়িয়ে, যেতে হবে এগিয়ে
ডাকছে ক্লাব—একের পাশে চারটি শূন্য।
৮ই মার্চ, ২০২০


________________________________________

ব্লগের শব্দ সংখ্যা সীমাবদ্ধতার কারণে এই লেখাটাতেও একাদশটা সম্পূর্ণ করা গেল না, একাদশের শেষটা রইলো পরের অংশে

________________________________________
 
 
এবারের কবিতার একাদশটা এক নজরে চোখ বুলিয়ে নেয়া যাক—
 
তামিম ইকবাল, কুমার সাঙ্গাকারা, ডন ব্র্যাডম্যান, মোহাম্মদ ইউসুফ, এন্ডি ফ্লাওয়ার, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ আশরাফুল, শেন ওয়ার্ন, হেনরি ওলোঙ্গা, জেমস এন্ডারসন ও গ্লেন ম্যাকগ্রা।
 
কবিতার একাদশ-এর প্রথম পর্বের লিংক...
https://pavilion.com.bd/user/feeds/4646/details
_________________________________________________________