• ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত সিরিজ
  • " />

     

    • ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ভারত সিরিজ

    'পুনর্বাসনের জন্য কানাডায় টি-টোয়েন্টি খেলছেন রাসেল'

    ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের সময় লাইভস্কোরে চোখ রাখলে আপনি একটু ধন্দে পড়ে যেতে পারেন। আন্দ্রে রাসেল না চোটের জন্য ভারতের বিপক্ষে সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন? তাহলে তিনি কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট লিগে খেলছেন কীভাবে? ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী জনি গ্রেভ বলেছেন, পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবেই রাসেল ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলছেন।

    কথাটা শুনে আরও বিভ্রান্ত হয়ে গেছেন। হাঁটুর চোট অনেক পুরনো শত্রু রাসেলের, বিশ্বকাপের সময় কম ভোগায়নি তাকে। এরপর অস্ত্রোপচার করতে হয়েছে, ভারতের বিপক্ষে সিরিজের আগেই অবশ্য সেরে ওঠার কথা ছিল রাসেলের। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বাদ পড়েছেন। সেটা না হয় হলো, এরপর কানাডায় গিয়ে টি-টোয়েন্টি লিগ খেলেন কীভাবে? উইন্ডিজ বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ইএসপিএনক্রিকইনফোকে বলেছেন, ‘আমরা কানাডায় শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলার অনুমতি দিয়েছে ওকে। ওর ফিটনেস দেখার জন্য আমাদের কয়েকজন ফিজিও আছে জি টোয়েন্টিতে। আন্দ্রের হাঁটুর অবস্থা তাই আমরা সার্বক্ষণিক জানতে পারছি। তবে ঘরোয়া ক্রিকেট ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলার বিশাল ব্যবধান আছে। আমরা সবাই রাসেলকে শতভাগ ফিট হিসেবে দেখতে চাই। আমরা চাই ও ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং সবকিছুতেই শতভাগ দিই।’

    গ্রেভ অবশ্য বলছেন, রাসেলের হাঁটু কখনোই একদম আগের মতো ঠিক হবে না, ‘অন্য অনেক ক্রীড়াবিদ, যেমন বেকহাম ও ইব্রাহিমোভিচের যেমন হাঁটূর সমস্যা আছে, প্রতিদিনের পুনর্বাসন আন্দ্রেকে বাকি ক্যারিয়ারেই চালিয়ে যেতে হবে। আমরা আশা করব ও আমাদের পরামর্শ নেবে, হাঁটুর চোট কাটিয়ে শতভাগ ফিট হয়ে ফিরে আসবে।’

    রাসেলকে যদি খেলতে নাও চাইত, উইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড তাতে বাধ সাধতে পারত না। রাসেল যে তাদের চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়ই নন! গ্রেভ অবশ্য বললেন, রাসেল তাদের পরামর্শ শুনছেন, ‘ও কী করবে সেটা তো আমরা ওকে বলে দিতে পারব না। তবে ও আমাদের কথা শোনে, এটা আমরা নিশ্চিতভাবে জানি। আমি জানি, সে সব ম্যাচ খেলেনি, এখনও বল করেনি। আশা করছি ও চিকিৎসকদের পরামর্শ নেবে। নিজের পুনর্বাসনের কাজ ভালোমতোই করবে। একটা বিরতি দরকার ওর, এরপর সিপিএল আছে। সেটার পর ওকে আবার পরীক্ষা করে দেখা যাবে।