• চ্যাম্পিয়নস লিগ
  • " />

     

    আমি না থাকলে কেউ এমএলএস-এর কথা মনেও রাখবে না: ইব্রাহিমোভিচ

    এই মৌসুমে মেজর লিগ সকার (এমএলএস)-এর ক্লাব এলএ গ্যালাক্সির সাথে চুক্তি শেষ হতে যাচ্ছে ইব্রাহিমোভিচের। চুক্তি নবায়নের কথা চলে আসলেও মৌসুম শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত কিছুই বলতে চাননি সুইডিশ কিংবদন্তী। তবে ২৫ অক্টোবর ২০১৯ এমএলএস প্লে-অফে খুব সম্ভবত গ্যালাক্সির জার্সিতে নিজের শেষ ম্যাচ খেলে ফেললেন ইব্রা। একই শহরের আরেক ক্লাব লস অ্যাঞ্জেলেসের কাছে ৫-৩ গোলে প্লে-অফ হেরে কনফারেন্স সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছে গ্যালাক্সি। হারের পরও খুব একটা হতাশ হননি ইব্রা, উল্টো ম্যাচ শেষে বলেছেন; এমএলএস-কে বিখ্যাত করেছেন তিনিই, তার অনুপস্থিতিতে কেউ তাদের মনেও রাখবে না।

    ম্যাচ পরবর্তী সাক্ষাৎকারের আগেই অবশ্য বিতর্কের আগুনটা উসকে দিয়েছেন ইব্রাই। ম্যাচ শেষে তাকে দুয়ো দিচ্ছিলেন এলএ-এর সমর্থকেরা, তখন আপত্তিকর অঙ্গভঙ্গি করে মাঠ ছেড়েছেন তিনি। এরপর সাক্ষাৎকারে আবারও স্বভাবসুলভ দাম্ভিকতার পরিচয় দিয়েছেন ইব্রা, “গ্যালাক্সিতে থেকে গেলে সেটা এমএলএস-এর জন্যই ভাল হবে। আর আমি না থাকলে কেউ এমএলএস-কে মনেও রাখবে না। এই স্টেডিয়ামগুলো আমার জন্য খুবই ছোট। আমি ৮০,০০০ দর্শকের সামনে খেলে অভ্যস্ত। এখানে খেলা আমার জন্য পার্কে হাঁটার মতই সহজ।"

     

     

    ২০১৯ এমএলএস মৌসুমে মাঠের পারফরম্যান্সের মতই মাঠের বাইরেও সরব উপস্থিতি ছিল সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড স্ট্রাইকারের। একাধিক সংবাদ সম্মেলন, সাক্ষাৎকারে এলএ এফসির স্ট্রাইকার কার্লোস ভেলাকে অপমান করেছেন অনেকবার। বলেছেন, ভেলার অর্জন তার ক্যারিয়ারের সিকিভাগও হবে না কখনো। হারের পরও ভেলাকে হয়তো শেষবারের মত একহাত নিয়েছেন ইব্রা, “আমি ভেলাকে বিখ্যাত বানিয়েছি। আমার কারণেই এখন এত মানুষ লস অ্যাঞ্জেলেস এফসি-এর কথা জানে। তাদের খুশি হওয়া উচিত। ভেবে দেখুন আমি না থাকলে তাদের কী অবস্থা হবে।” 

    ভেলা অবশ্য কথার চেয়ে জবাবটা দিয়েছেন মাঠেই। ইব্রাকে (৩০) টপকে হয়েছেন এই মৌসুমের সর্বোচ্চ গোলদাতা (৩৫)। আর কনফারেন্স সেমিফাইনালে নিজেদের মাঠে ‘লস অ্যাঞ্জেলেস’ ডার্বিতে শেষ হাসি হেসেছেন তিনিই। ভেলার জোড়া গোল এবং এক অ্যাসিস্টে ইব্রার গ্যালাক্সিকে ৫-৩ গোলে হারিয়ে ফাইনালে চলে গেছে তারা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল করে ম্যাচে ২-২ সমতায় এনেছিলেন ইব্রাই; তবে প্রথমার্ধে ভেলার জোড়া গোলেই লিড নিয়েছিল এলএ। শেষ পর্যন্ত আর ব্যবধান গড়ে দিতে পারেননি ইব্রা। গ্যালাক্সির হয়ে কোনো শিরোপা না জিতলেও ৫৬ ম্যাচে গোল করেছেন ৫২টি, অ্যাসিস্ট ১৭টি। ২০১৮-তে জিতেছিলেন এমএলএস-এর বর্ষসেরা গোলের পুরস্কারও।

     

     

    এতদিন ধরে তার ভবিষ্যতের গুঞ্জনটা এড়িয়ে গেলেও এবার হয়তো আর সেটা সম্ভব হচ্ছে না ইব্রার জন্য। কিছুদিন আগে ইতালিয়ান সংবাদপত্র গাজেত্তা দেল্লো স্পোর্টকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ৩৮ বছর বয়সে এসেও সিরি আ-তে খেললে প্রতি মৌসুমে ২০ গোল পাবেন তিনি। আর্জেন্টিনা কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনার মতো নাপোলিতে খেলার আগ্রহের কথাও জানিয়েছিলেন। এবার নাপোলি কোচ কার্লো আনচেলত্তি বলছেন, ইব্রাকে নাপোলিতে আসার প্রস্তাব দেবেন তিনি নিজেই।

    টুট্টোস্পোর্ট জানিয়েছে; শীতকালীন দলবদলের আগেই ইব্রার সাথে কথা পাকা করতে চাইছে নাপোলি। ইউনাইটেডে ফেরা বা বোকা জুনিয়র্সের নাম শোনা গেলেও তাই হয়তো আবারও ইতালিতেই ফিরছেন তিনি। এসি মিলান, ইন্টার মিলান, জুভেন্টাসের হয়ে খেলেছেন আগেই। নাপোলিতে যোগ দিলে ইতালির শীর্ষ চার ক্লাবের হয়েই খেলার অভিজ্ঞতা হয়ে যাবে ইব্রার।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন