• ক্রিকেট

বাংলাদেশ ক্রিকেট বনাম ভারত ক্রিকেট( টি-২০পর্ব)

পোস্টটি ২৮৮ বার পঠিত হয়েছে
কালে কালে অনেক বেলা পেড়িয়ে যাওয়ার সাথে বদলে যাচ্ছে অনেক কিছু। ব্যতিক্রম ঘটেনি বাংলাদেশ ক্রিকেটেরও।।আজ ১৬ কোটি মানুষের কাছে ক্রিকেট এক উন্মাদনা, ক্রিকেট প্রাণের খেলাই পরিনত হয়েছে। তার-ই প্রেক্ষিতে সামনে আবার একটি সিরিজ আসছে।আর সেই সিরিজের প্রতিপক্ষ যখন প্রতিবেশী দেশ ভারত তখন স্বাভাবিকভাবেই দ্বৈরথটা আরোও বেড়ে যায়।।তখন টাইগার বাহিনী লড়াইয়ে নামে লাল সবুজের পতাকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে আর আকাশী জার্সিধারীরা নামে ভারতের পতাকা সবার উপরে তুলে ধরতে।। আজ সেই দ্বৈরথ আবার দরজায় কড়া নাড়ছে।।।এর উষ্ণ উত্তেজনা এরই মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।। তবে সেই উত্তেজনার প্রধান হাতিয়ার আমাদের দেশীয় খেলোয়াড়-রা ।।আর তাদের নিয়েই আজকের আলোচনা।।। টি-২০স্কোয়াডে রয়েছে: *"¶সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাইম, মাহমুদউল্লাহ(ক্যাপ্টেন) আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, আমিনুল ইসলাম, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, আরাফাত সানি, আল আমিন হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, সফিউল, আবু হায়দার রনি, মোহাম্মদ মিঠুন, তাইজুল ইসলাম।।। এখন টি-২০ সিরিজ নিয়ে আলোচনা করা যাক।। টি-২০ তে আর যায় হোক আমরা ভারতের চেয়ে অনেক পিছিয়ে আছি এবং পয়েন্ট টেবিলের সবচেয়ে নিচের সারিতে আছি এটা মেনে নিতে হবে।। কিন্তু আমারা এও জানি যে সর্বশেষ খেলা টি-২০ ম্যাচগুলোতে আমরা অনেক দৃঢ়তার পরিচয় দিয়েছি।।যা থেকে আমরা জয় আশা করতেই পারি।।ভারত টি-২০তে অনেক শক্তিশালী দল।।তাই তাদের হারাতে হলে অবশ্যই পূর্বপরিকল্পনা থাকতে হবে।। আমারা সাকিব, তামিম, সাইফুদ্দিন কে পাচ্ছি নাহ তাদের জায়গাটা পূরণ করা অসম্ভব আবার যারা তাদের জায়গাটা পূরণ করবে তারা অধিকাংশই নতুন।।তাই তাদের কাছে যতটুকু পাওয়া যাবে তার দিক লক্ষ্য না রেখে আমাদের মধ্যে যাদের অবশ্যই ভালো করতে হবে--- ----সৌম্য লিটন ওপেনিং জুটি:- টি-২০ অবশ্যই আমি ওপেনিং-এ এই জুটিকে বেছে নিবো।। যেহেতু দলে ৩ জন বড় খেলোয়াড় নেই নতুন কাউকে (নাইম) অভিষিক্ত করা ঠিক হবে না ।।আর আমরা জানি তামিম থাকলে ব্যাটিং ওর্ডার একটা আলাদা সাহস পায়।। তামিম না থাকায় সে কাজটার লিটনকে দায়িত্ব নিতে হবে।। খেলাটা শেষ করে আস্তে হবে।।অযথা ভুল শট খেলে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসা যাবে না।।আর সৌম্য সরকার হল দলের সবচেয়ে বড় বিগ হিটার তাকে মেনে নিতে হবে শেষ দিকে ঝড় তোলার মতো খেলোয়াড় আমাদের নেই ।। যদি বড় রান তাড়া করতে হয় বা বড় রান সংগ্রহ করতে হয় তাহলে তাকে অন্তত সম্পূর্ণ পাওয়ার প্লে পর্যন্ত টিকে থেকে তার সদ্ব্যবহার করতে হবে ।। অন্তত এই জুটি যদি একটা শুভ সূচনা এনে দিতে পারে তবে আমার বিশ্বাস এই স্কোয়াড নিয়েও ভারতকে হারানো যাবে।। আর বুমরাহ্ , ভুবেনশ্বর না থাকায় তাদের বোলিং ইউনিট একটু হলেও বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে থাকবে।। -----এরপর সাকিবের জায়গায় আমার প্রথম পছন্দ মোহাম্মদ মিঠুন।--- --------মোহাম্মদ মিঠুন:----- ৩ নাম্বারে মিঠুন সাকিবের জায়গাটা অনেকাংশে পূরণ করবে বলে আমি মনে করি।। যেহেতু ভারত টি-২০ স্কোয়াডে বুমরাহ , ভুবেনশ্বর নাই সেহেতু তারা তাদের স্পিন অ্যাটাকের দিকে বেশি নজর দিবে ।আর মিঠুন সে পরিস্থিতি অবলিলায় পাস করবে ।কারন সে স্পিন অনেক ভালো খেলে।যদি কোন দূর্ঘটনা না ঘটে তাহলে বড় রান সংগ্রহে তার অবদান অনেক খানি কাজ করবে।। সবচেয়ে বড় কথা হল এই জায়গাটায় তাকে দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে।। তারপরে আসি ---মুশফিক মাহমুদউল্লাহ জুটি:--- দল যখনই বিপদে পড়ে তখনই তাদের ব্যাট হাসে এটা আমরা প্রায়শই দেখে থাকি‌। আজ আবার সেই মূহুর্ত।। ৩ জন বড় খেলোয়াড় নাই সেই সাথে টিমের তারাই এখন সবচেয়ে বড় সিনিয়র খেলোয়াড়।। তাদের অন্যদিনের মতো খেলাটা নিজ হাতে ধরে রেখে নিজ ভালো খেলাটা উপহার দিতে হবে।।আর সবসময় মাথায় থাকতে হবে খেলাটা যেন শেষ পর্যন্ত খেলে আসা যায়।। তারপরেই আসে আমাদের সকলের পরিচিত ----আফিফ মোসাদ্দেক জুটি:- ---সর্বশেষ জিম্বাবুয়ে সিরিজে আমরা আরেকটি আশা জাগানিয়া জুটি পেয়েছি‌।।এই তরুণ জুটি একটা ম্যাচ একাই জয় ছিনিয়ে নিয়ে এসেছে।।। স্বাভাবিকভাবেই তাদের উপর আমাদের চাওয়াটা থাকবে আকাশচুম্বী।।তবে তারা যদি চাপ না নিয়ে নিজের খেলাটা উপহার দেয় তাহলে দিন শেষে পয়েন্ট টেবিলের সব তথ্য যে ভুল প্রমাণিত হবে তা আমার দৃঢ় বিশ্বাস।। """এরপর আসি বোলিং ইউনিট-এ"" ---আমিনুল ইসলাম বিপ্লব:- --সবকিছু ঠিক থাকলে ভারত টি-২০ সিরিজে আমিনুল যে খেলছে এটা অনেকটা জলের মতো স্বচ্ছ।। তরুণ এই লেগী আমাদের তুরুপের তাস হতে পারে এ আশা করাই যায়।।তবে সে যদি চাপমুক্ত খেলে তাহলে সে অন্তত একটা ভালো খেলা উপহার দিবে তা জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর থেকে প্রত্যাশা করা যায়।। পাওয়ার প্লের এক ওভার আর মাঝখানে তার ওভারগুলা বাংলাদেশের জয়ের অবদান রাখবে। ---মোস্তাফিজুর রহমান:---- আমাদের বোলিং ইউনিট কে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিবেন তিনি।।আর নামটা যখন ফিজ তখন কেন জানি অলৌকিক কিছুর আশা জাগায়।। দলের জয় পরাজয় যে অনেকাংশেই তার। চার ওভারের উপর নির্ভর করে এটা আর বলার লাগে নাহ।। তাকে অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট এনে দিতে হবে এবং কিপ্টে বোলিং করতে হবে।। যেহেতু তিনি আইপিএল খেলেন সেহেতু ভারতীয় ক্রিকেটারদের অনেক কিছুই তার জানা যেগুলো দিয়ে সে অন্য সদস্যদের সহযোগিতা করতে পারে। সেই সাথে তাকে তার ইকোনমি রেটের দিকে খেয়াল রাখতে হবে।।কারন বর্তমানের ভারতের বিপক্ষে তার ইকোনমি রেট ৮.২০ যা তার মতো বোলারের নামের সাথে মানায় না। ---সফিউল ইসলাম:----মোস্তাফিজের সাথে জুটি গড়ে তাকে বল করতে হবে । তাদের দু'জনকেই খেলাটা শুরু এবং শেষ করতে হবে। আর সফিউল নতুন এবং পুরাতন উভয় বলেই সুইং ঘটাতে পারে।।এর সদ্ব্যবহার করলে সে অবশ্যই ভারতকে বিপদে ফেলতে পারবে। সেই সাথে এটা তার জন্য একটা চ্যালেঞ্জেরও বিষয় ।সে যদি ভালো খেলে তাহলে দলে নিয়মিত হওয়ার রাস্তাটা তার সুদীর্ঘ হবে। এগারো নম্বর খেলোয়াড় হিসাবে আমি চাই। ----আল আমিন হোসেন/ আরাফাত সানি:----- আমি দুজনকেই এই জায়গাটার জন্য যোগ্য মনে করি কারণ ভারতের বিপক্ষে আল আমিন এর অতীত রেকর্ড মোটামুটি ভালো।।সে ভারতের বিপক্ষে ৪ ম্যাচ খেলে ৭ উইকেট কিন্তু ইকোনমি একটু বেশি ৯.৫৭।।সে হিসাবে তৃতীয় বোলার হিসেবে তার জায়গাটা অনুমিত কিন্তু ভারতের স্কোয়াডে ডানহাতি ব্যাটসম্যান তুলনামূলক বেশি সে হিসাবে সাকিবের বোলিং শূন্যতা ‌কিছুটা পূরনের জন্য আরাফাত সানি কে নেওয়ায় যায় সেই সাথে প্রস্তুতি ম্যাচে তার পারফরমেন্সও মোটামুটি ভালোই।। বাকিটা বোর্ডের উপরই ছেড়ে দেওয়া যায় তারা এসবের মাঝেই বেড়ে ওঠেছে।। ----পরিশেষে আমার টি-২০ একাদশ হবে: ----সৌম্য সরকার,লিটন কুমার দাস,মোহাম্মদ মিঠুন,মুশফিকুর রহিম,মাহমুদউল্লাহ(ক্যাপ্টেন) আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, আমিনুল ইসলাম,আরাফাত সানি/ আল আমিন হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, সফিউল।---- পরিশেষে বলতে চাই এগিয়ে যাও অদম্য গতিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট।।জানি তোমরাই পারবে আলাদা করে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরতে।। বাংলাদেশ ক্রিকেট আর টিম টাইগারদের সাথে আমরা ছিলাম, আমরা আছি ,আমরা থাকবো। এগিয়ে যাও টাইগার বাহিনী
'প্যাভিলিয়ন ব্লগ’ একটি কমিউনিটি ব্লগ। প্যাভিলিয়ন ব্লগে প্রকাশিত লেখা, মন্তব্য, ছবি এবং ভিডিওর সম্পূর্ণ স্বত্ব এবং দায়দায়িত্ব লেখক এবং মন্তব্য প্রকাশকারীর নিজের। কোনো ব্যবহারকারীর মতামত বা ছবি-ভিডিওর কপিরাইট লঙ্ঘনের জন্য প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। ব্লগের নীতিমালা ভঙ্গ হলেই কেবল সেই অনুযায়ী কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবেন।