• আইপিএল ২০২০
  • " />

     

    ভারত সরকার অনুমতি দিলে আরব আমিরাতেই আইপিএল

    সংযুক্ত আরব আমিরাতেই হচ্ছে এ বছরের আইপিএল। টুর্নামেন্টটির গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল নিশ্চিত করেছেন এটি, জানিয়েছে ক্রিকইনফো, হিন্দুস্তান টাইমস। বিসিসিআই এখন তাদের দেশের সরকারের অনুমতির জন্য অপেক্ষা করছে। পরের সপ্তাহে বোর্ড মিটিংয়ের পরই এ ব্যাপারে আসবে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত। 

    কভিড-১৯ মহামারির কারণে এপ্রিলে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয়েছিল ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। তবে ভারত অপেক্ষা করছিল আইসিসির টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিলের সিদ্ধান্তের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার জন্য। সে ঘোষণা এলেই তারা আইপিএলের ভেন্যু নির্ধারণ করা হবে, এমন জানিয়েছিল বিসিসিআই। 

    ভেন্যু ঠিক হলেও এখনও দিন-তারিখ নিশ্চিত হয়নি আইপিএলের। ক্রিকইনফো বলছে, সেপ্টেম্বরের ২৬ থেকে নভেম্বরের ৭ তারিখ পর্যন্ত হতে পারে এটি। দুবাই, আরব আমিরাত, শারজাহ-- এ তিন ভেন্যুতে হবে এই টুর্নামেন্ট। 

    “আমরা আইসিসির আনুষ্ঠানিক ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করছিলাম (টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিলের সিদ্ধান্ত)। ভারত সরকারের কাছে অনুমোদন চেয়েছি। পেয়ে যাওয়ার কথা”, বলেছেন প্যাটেল। তবে আইপিএল দর্শকশূন্য মাঠে হবে কিনা, সেটি নিশ্চিত করেননি তিনি। বলেছেন, সেটি নির্ভর করছে আরব আমিরাতের সরকারের ওপর। 

    কভিড-১৯ বেশ বাজেভাবে আঘাত করেছে ভারতকে। এ টুর্নামেন্ট আয়োজনের সম্ভাবনা ভারতে তাই নেই বললেই চলে। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের সিদ্ধান্ত আসার পর আইসিসির সূচিতে নতুন উইন্ডো তৈরি হয়েছে এ টুর্নামেন্টের জন্য। আইসিসি বলেছে, দ্বিপক্ষীয় সিরিজ ও দেশগুলির ঘরোয়া আয়োজনের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের সূচি অদল-বদল করেছে তারা। 

    আইপিএল আয়োজনের জন্য বিসিসিআইকে এর আগেই প্রস্তাব দিয়ে রেখেছিল শ্রীলঙ্কা ও আরব আমিরাতের ক্রিকেট বোর্ড। এর আগে আইপিএল ভারতের বাইরে হওয়ার রেকর্ডও আছে, জাতীয় নির্বাচনের জন্য ২০০৯ সালের পুরো আসর দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ২০১৪ সালের প্রথম অংশ হয়েছিল আরব আমিরাতে। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন